পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত—কৃষ্ণকমল গোস্বামী—জন্ম ১৮১০ খৃঃ । ら○〉。 ওকি মেঘের গর্জন শুনি, --( বল দেখি গো, ও সজনি ! )– ' না কি প্রাণনাথের বংশীধ্বনি ? বিশাখা। ( কৃষ্ণের প্রতি ) ওহে প্রাণবল্লভ ! ওখানে দাড়া’য়ে কেন ? ( অগ্রসর হইয়া কৃষ্ণের হস্তধারণ-পূর্বক ) এস এস প্রাণনাথ,— এস ওহে রাধানাথ! দাড়াও রাধা-সনে ; মন নয়ন জুড়াই মোরা যুগল-দরশনে। ( রাধাকৃষ্ণ-যুগলমিলন ) রাগিণী—মুলতান, তাল—খয়রা। সখীগণ –ওগো দেখু সহচরি, যুগল-মাধুরী, শু্যামের বামে প্যারী কিবা সেজেছে। রূপে কিশোর যেমন, কিশোরী তেমন, আর কি এমন জগতে আছে ॥ ত্রিভঙ্গ ভঙ্গীতে দাড়া’ল ত্রিভঙ্গী, দেখ না সঙ্গিনি রঙ্গিণীর কি ভঙ্গী, ভঙ্গীতে ভঙ্গীতে মিলেছে – দেখ, উভয়-উভয়াঙ্গে, হেলা’য়ে শ্ৰীঅঙ্গে, শুামাঙ্গে হেমাঙ্গ ঝলক দিতেছে ৷ উভয়েরি নেত্র উভয়েরি আস্তে, মুহান্ত প্রকাশু উভয়েরি আস্তে, পীযুষে ঔদাস্ত করেছে – মন-সহ মন, নয়নে নয়ন, । মরি কি মিলন হ’য়েছে – যেন, তৃষিত চকোরে, পেয়ে সুধাকরে, সুধাপান ক’রে ম’জে রয়েছে। নব কাদম্বিনী-সহ সৌদামিনী, জম্বুনদ-হেম, মরকত-মণি, সবে এরূপে উপমা দিয়েছে – নব-ঘনঘটায় কি লাবণ্য-আভা, সৌদামিনী সেও হয় ক্ষণপ্রভা, কিরূপে এরূপে মিলেছে।