পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬৮৮ বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । তোড়লমল গঙ্গার কিনারায় আসিয়া দেখিলেন প্রান্তরে দাউদের সামন্তের দৃঢ় শূন্ত পাচিয়া রহিয়াছে ইহারদের মজবুতি দেখিয়া সহস কাহারু পার হওনের সাহস হইল না অসঙ্গত্য ক্রমে কয়েক দিবস পরে আপনার সর্জ হইয়া যিনি ২ পার হএন ও পারের সান্নিদ্ধ হইতেই ২ তোবের গোলার চোটে লৌক সমেত সমস্ত সেনা গারত করিয়া দেয় উপরে কেহ উঠিতে পারে না। এই ২ রূপে বাদসাহি সৈন্ত অনেক মারা গেল। তোড়লমল এই সমস্ত দেখিয়া নিরোপীয় ক্রমে বিমর্শ হইয় হজুর এংলা কারণ বেওর। পুরস্তরে আরজদাস্ত করিলে বাদসাহ মহা রোষান্বিত সেনাতে সাজনিঘোষণ ডঙ্কা দিতে হুকুম করিলেন। পাচ লক্ষ সামন্ত দিল্লি গেৰ্দ্দে ছিল সমস্ত আনয়ন করিয়া হুকুম হইল গৌড়ে চড়াই করিতে ও দাউদের শিরচ্ছেদন করিতে এই মতে সৰ্ব্ব সামন্ত হুকুমানুক্রমে মহাদন্তে দন্তয়মান হইয়া হুহুঙ্কার হুঙ্কার শব্দ করিয়া সর্জ চারিদিকে নানাপ্রকার শব্দ হইতে লাগিল ধা ২ শব্দে সোর হইতে লাগিল ও তড়াতড়ে বন্দুক জয় ঢাক ইত্যাদি নানাবিধি বাদ্য বাজিতে লাগিল অতি ঘোর কল্লোল শব্দে কন্ন রোধ হওনের গোছ এইরূপে সামন্তেরা সর্জমান হইয়া মহাদন্তে গৌড়ে গতি করিল বাদসহিও আপনি শিকার খেলিবার মতে গৌড়মুখে রাহি হইলেন এথাতে দাউদের ওকিল ছেন্দোস্থান হইতে দেখিল আর নিরাকরণ হইতে পারে না বাদসহ আপনে রোষান্বিতে পূৱ সরঞ্জামে গৌড়ে গতি করিলেন বিবেচনা পূৰ্ব্বক বিহিত বচন হুকুম হবেক । এই খবরে দাউদ মুছিন্ন হইয়া বিক্রমাদিত্য ও বসন্তরায়কে ডাকিয় নিগুড় বলিলেন তাহারদিগকে এবার। আমার আর জয় হয় বা না হয় আপনে দিল্লীশ্বর সমস্ত সৈন্ত সসৰ্জমান হইয়া গৌড়ে রাহি হইয়াছেন অতএব এখন আর কার সাধ্য পৃথিবীতে তাহার অগ্রভাগে ডাণ্ডাইয়া বরাবরি করিতে তাহার সহিৎ বুঝি আমার এই শেষ দশা নতুবা এমত কুবুদ্ধি আমাকে ঘটিত না আমি পতঙ্গ কমরবন্দি করি সিংহের সাতে যাহা হউক সমস্তই সময়ানুযায়ি। এখন তাহার আর উপায় নাই আমার আর সেনাপতি ও সামন্ত যে কিছু আর আর স্থানে আছে সমস্তই উত্তর পশ্চিমের খানাজাতে পাঠাও। তোমরা দুই ভাই আমার সাতে থাকহ আমরা পাছে থাকিয়া সৈন্তের রসদ যোগাই এবং রাজ্যের রক্ষা করি আমার যে কিছু ধন সম্পত্য গৌড়ে আছে তাহ সমস্ত একাদিক্ৰমে তোমাদের যশহরে চালান করহ পশ্চাৎ আনা যাবেক । এই দুই ভ্রাত দাউদের নিতান্ত