পাতা:বনলতা সেন - জীবনানন্দ দাশ.pdf/৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

তােমাকে

ভেবেছিলাম এ কথা স্থির মেনে নিতে পারি:
নিউট্র ও ইলেকট্রনের অন্ধ সাগরে
ওদেরই জাদুবলে তুমি হয়েছ আজ নারী;
ওদেরই দয়ার ফলে আমি প্রেমিক তােমার তরে।

তবুও এ ভুল হৃদয়ঙ্গম—মহাসৃষ্টির মানে
হয়তাে ঠিক এমনভাবে উৎসারিত নয়।
তা যদি হতাে তবে যেদিন নিজেরই পরামর্শে সজ্ঞানে
আমাকে তুমি দিয়েছিলে অব্যর্থ হৃদয়
সে স্বাদ হয়ে যেত কি আজ হেমন্তে আবার ক্ষয়।
শীতের পড়ি-পড়ি বেলায় ফসল কেটে নিচ্ছে চাষা ঘরে;
নদী বুকে প্রকৃতি জল রেখেছে, তবু রক্তের উদয়
এসে সবই আচ্ছাদিত করে।

আজ শতকে মানুষ নারী শূন্য হ'তে এসে
চলেছে শূন্যে—আঁধার থেকে অপরিসীম আরও
অন্ধকারের ভেতরে গিয়ে মেশে।
এছাড়া কোনাে সত্য নেই—উপায় নেই কারও।

এরই ভেতর অন্য এক গভীরত্র নিরুপয়তা আছে;
মানুষ ও তার চিরস্থায়ী মানবছায়া ছাড়া
জানে না কেউ; প্রলম্বিত নীল আকাশের কাছে।
কোনােদিনও পৌছােবে না সাড়া।

৬৪