পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ ૭૨ ] চট্টগ্রাম, ছোটনাগপুর, ঢাকা, প্রেসিডেন্দী \9 রাজসাহী, এই সমস্ত বিভাগে ৪৪৪ খানার বেশী পুস্তক প্রকাশিত হয নাই ; কিন্তু এক মহানগরী কলিকাতাতে ১০৬২ খানা পুস্তক প্রকাশিত হইযছিল । আবাব পূর্ববঙ্গেব ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগেব পুস্তক সংখ্যাব সহিত পশ্চিমু বঙ্গেব ভাগলপুব, বৰ্দ্ধমান ও প্রেসিডেন্সী বিভাগ ও বাজ ধানা কলিকাতাব পুস্তক সংখ্যাব তুলনা কবিলে দেখা যায যে, ১৮৯৭ সালে পূর্ববঙ্গে ১০খানি মাত্র পুস্তক প্রকাশিত হয়, কিন্তু পশ্চিম বঙ্গে ১২৪২ থান প্রকাশিত হয় । স্থতবাং পূর্বল বঙ্গকে আপন ধাবা ছাডিতে হইলে যত লেখককে নূতন ধাবা শিখিবাব কষ্ট পাইতে হইবে, পশ্চিম বঙ্গকে আপন ধাবা ছাডিতে হইলে তদপেক্ষ অনেক অধিক লোককে নূতন ধাবা শিথিব’ব কষ্ট পাইতে হইবে । অতএব পূর্বব বঙ্গেরই আপন খবা ছাডিফ পশ্চিম বঙ্গেব ধাবা গ্রহণ কৰা কক্তব্য । আবাব কলিকত। এখন বঙ্গেব বাজধানী । এ জন্য ও পশ্চিম বঙ্গেব ভাষাই সমস্ত বাঙ্গ লীব আদেশ ভাসী হওয়া উচিত । মহাবাজ షో কৃষ্ণচন্দ্রেব সমযে নদীযর ভাষাই বঙ্গে আদর্শ ভাষা