পাতা:বাঙ্গালা ভাষার অভিধান (প্রথম সংস্করণ).djvu/৪০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কাটা ফেরান। টেরি ত্রঃ। কাটকাট (টাে)— প্রার কাটিবার মত : কাটে আর কি। কাট কাট মার মার করা (টু বু) কাটিব মাগ্নিব এইরূপ রব তোলা : কাটিতে মারিতে উদ্যত হওয়া : ঔদ্ধত্য প্রকাশ করা । কাটাকাটি-পরম্পর হত্যাকরণ , পরস্পরকর্তৃক পরস্পরকে কাটা : এ কাটে ওকে ও কাটে একে ৷ প্ৰ—“কাটাকাটি করি কত কোটি কোটি মৈল।”—শিবায়ন। কাটাকাটি মারামারি—তুমুল ঝগড়া ও খুনোখুনি। কাটকুট-ছেদন ও পেষণ বা মৰ্দ্দন । ২ । [ কাট+ক্ষুদ্রার্থে কুর্ট ] ছোটবড় ভুলচুক সংশোধন : ভুল ভ্রান্তি স্থানে স্থানে সংশোধন । কাটাকুটি-কাৰ্বত বা ক্ষুদ্র তৃণাদি। ২। বারংবার কাটা । কাটাকুটি করা— হিসাবপত্রে বাদসাদ দিয়া বাকী কাটা । উপযুপিরি কাটা বা হ্রাস করা । কার্টকুট দ্রঃ । কাট ছাট (টু )—ডৌল : আকার ও ছাদ । কাট-ছাট করা—(টু) কাটা ও বাদ দেওয়া : নক্সা বা আদর্শনুযায়ী আকারে কাটা এবং অতিরিক্ত অংশ ছাটিয়া ফেলা । কাট কাটা-গাছ কাটিয়া জ্বালানী কাঠ তৈয়ার করা । প্র—বনে কাট কার্টুতে যাওয়া । ২ । কাঠ কাটিয়া নষ্ট করা। প্র—“কাট কাটে বস্ত্র কাটে কাটে সমুদয়।” নক্সাকাটা–রেখাঙ্কন করা ; ফুল পাতা প্রভৃতির রেখাপাত করা। পাট বা পাঠ কাট –ছাগবলি দেওয়া - ২ । মাংস আহারের জন্য ছাগ কাটয় খণ্ড খণ্ড করা । পথকাটা--বন, জঙ্গল, মৃৎস্ত,প প্রভৃতি কাটিয়৷ গমনাগমনের পথ করিয়া দেওয়া ৷ ২ ৷ ভিড়ের মধ্যে ঠেলিয়া প্রবেশ করিয়া গমনাগমনের পথ করা । শিল কাট-মল্লা বা বাৰ্টুন বাটিবার শিলা ক্রমাগত ঘর্ষণে মন্থণ হইলে পুনরায় তাহার উপর ছেনি কিয়া অমহণ করা। Uigns, oilà [**—diamond +xt:কাটা ] হীরা কাটিয়া তাহাতে যেরূপ পল তোলা হয় সেইরূপ সোণ রূপা প্রভৃতি ধাতু বা রত্ন কাটিয়া তাহাতে পল বা টোপ তোলা । কোষ্ঠী কাটা—দ্বাদশ রাশির গৃহ সম্বলিত পতাকীচক্র প্রভৃতি আঁকিয় জন্মপত্রিকা প্রস্তুত করা । সাতার কাটা—সাতার দেওয়া : সত্ত্বরণ করা [ দুই হাতে ও পায়ে জল কাটিয়া যাইতে হয় বলিয়া কাটা’ ] । যুক্তি কাটা—যুক্তি থওন করা। তাল কাটা —গাছ হইতে তালের কাদি কাটা ও তালের মুখ কাটয় তাহা হইতে ভালশাস বাহির করা ৷ ২ ৷ সঙ্গীতের তাল কাটা ; বেতালা ©ጭ » হওয়া । ৩। বিণ, যাহারা তাল ও তালশাস কাটে ও বিক্রয় করে । প্র—তালকাটা হাড়ী । ৪ । এই জাতি অত্যন্ত কৃষ্ণবর্ণ বলিয়া "তালকাটা হাড়ী" বলিতে ঘোর কৃষ্ণবর্ণ, কুরূপ ও সৌষ্ঠবহীন। তিলক কাটা—তিলক রচনা কর । কাটাকাটা—আককটি দ্রঃ । স্পষ্ট স্পষ্ট ( কথা ) । ২ । যাহা কাটিয়া দেয় ; মৰ্ম্মচ্ছেদক ; চোথা : তীক্ষ । প্র-কাটা কাটা কথা। ছানা কাটা—আমরস যোগে দুধ হইতে তাহার সর বা স্নেহভাগ কাটিয়া বা ছিড়িয়া পিণ্ডাকারে পরিণত হওয়া । (ণিজন্ত) ছানা-কাটান। সূতা কাটা-চরকার স্বত তৈয়ার করা : তুলা হইতে স্থত করা । চরকা কাটা-চরকা ঘুরাইয়া তুল হইতে স্থত করা ; কাটন কাটা । বনেদ কাটা—গৃহ নিৰ্ম্মাণকালে তাহার ভিত্তির ভূমি খনন করা । ২ । কোন কায্যের স্বত্রপাত করা । কাটাঘায়ে মুনেরছিটে—অঙ্গ কাটিয়া যে ক্ষত তাহার যন্ত্রণ ত আছেই তাহাতে আবার লবণ স্পর্শ করাইলে যক্ষ্মণার অতিশয় বুদ্ধি হয় : তাহা হইতে এক কষ্ট্রের উপর অন্ত কষ্ট । তুল—মড়ার উপর খাড়ার ঘা। দিন কাটে তরাতি কাটে না—দিবসের গোলমালেও নানা বিষয় ব্যাপার দেখিয়া মন ভুলিয়া থাকে স্বতরাং সময় কোন রকমে কাটিয়া যায় কিন্তু রাত্রির নিস্তব্ধতা নির্জনতা ও অন্ধকারে দেহ মনের কষ্ট্রে সময় অতিশয় দীর্ঘ বলিয়া মনে হয় সুতরাং তাচ্য যেন আর শেষ হয় না । এক কাটে ভীরে অণর কাটে ধারে —কৰ্ত্তণীর ধারে তৃ কাটেই আবার তাহার ভারেও অনেকটা কোপ বসে এই দুই উপায়ে দ্রব্যাদি সহজে কাটা যায় । ২ । [ লক্ষণায় ] লোক কৰ্ত্তব্যের গুরুভার মাথায় পড়িলে কওকট এবং আর কতকটা তীক্ষ বুদ্ধির জোরে সংসারযাত্রা নিৰ্ব্বাহ করে ৷ ৩ ৷ লোকের দুই রকমে কাজ চলে, কিছু নিজের তীক্ষ বুদ্ধি বলে কিছু বা তাহার ভারি ভুরিতে অর্থাৎ মান সন্ত্রম ও ধনবত্তায় । কাটাই কাটা দ্রঃ বি, কাটানী ; কৰ্ত্তনমূল্য। কাটান (নো) { কাটা দ্রঃ ] ক্রি-বি, অতিবাহন ; ক্ষেপণ করা ; যাপন করা । ২ ] [ কাটার ণিজন্তরূপ ] কৰ্ত্তন করাণ : কাটাইয় লওয়া । ৩ । জলের পথ করিয়া লওয়া । ৪ । [ন] বি, বশীকরণাদি মন্ত্রের প্রতিষেধক মন্ত্র । ৫ । ঋণ বা দেয় পরিশোধ । কাটান-ছোঁড়ান (ন, ন গ্রে] সম্বন্ধ কৰ্ত্তন ও মায়াপাশ ছেদন ; সকল সংস্ৰৰ ছিন্ন করণ ; কাঠ সম্পর্ক রাহিত্য । প্র—তাঁর সঙ্গে কাটান ছেড়ান হয়ে গেছে আর মুখ দেখা-দেখি নাই । ২ । বাদ বিবাদের নিম্পত্তি : প্রাপ্য পাইয় দেয় দিয়া হিসাব চুকান বা মিটমাট করা । কাটানী কৰ্ত্তনী শব্দজ ] বি, কৰ্ত্তনের মুল্য ; কাটানের বেতন : কাটাই । কাটারি, কাটারী। কৰ্ত্তর দ্রঃ । কট্টার ত্রঃ] বি, কাদা : দা : কাটিবার অস্ত্র । প্র—“পিতল কাটারি কামে নাহি আয়ল, উপরহি ঝকমকি সার ।” —বিদ্যাপতি । “গলায় কাটারি দিয়ামরিব পরাণে”—কৃত্তিবাস। ২ । কাটারি পোকা : ইহার বেগুন আপু প্রভৃতি গাছের অনিষ্ট করে। কাটি, কাটা । কাঠ—মুদ্রার্থে ই, ঈ ] কি কাঠের সর ও ছোট খণ্ড : শিক ; কুচি ; ক্ষুদ্র তৃণাদির খণ্ড । প্র—“কাহিল হোলাম যেন একটি কাটি" © —দ্বিজেন্দ্র রায় । "ধৰ্ম্ম কাটি দেন ঢাকে, গোপনে কভু না থাকে" —গোপাল উড়ে । ২। খড়কে। প্র—দাতে কাটি দেওয়া বা করা। কাটিকরা–উসকাইয় দেওয়া : উত্তেজিত করা : ব্যস্ত বা অস্থির করা ; পোচ দেওয়া । কাটিখাল-মাটি কাটিয়া নিৰ্ম্মিত খাল ; খনিত দীর্ঘ জলাশয় । কাটিঘ [ কাটি—ঘ ( ক্ষ৩) দাতে কাটা বা দংশন-জাত ক্ষ৩ ] বি, সর্পাঘাত : সৰ্পদংশনের ক্ষত । কাটিয়া । কাটা দ্রঃ । ] কি কৰ্ত্তন করিয়া। ২ । [ গ্ৰা—কেটে ] বি, ওসর-কাটা ছোট কাপড় : হাটুর নীচেও পড়ে না এত ছোট ওসারের মোটা সুতার ( সাধারণতঃ তসরের ) কাপড় (স্ত্রীলোকের পরিধেয়)। কাটুরকুটুর। শব্দাত্মক পদ ] বি, কৰ্ত্তনশব্দবিশেষ ; দস্তুর জন্তুদিগের দন্ত দ্বারা কৰ্ত্তনের শধ । প্র—“ইন্রে করে কাটুরকুটুর” —ভারতচন্দ্র । ক{ট্য ( কাটুটে ) { কাটা দ্রঃ ] বিণ, কৰ্ত্তন যোগ্য। ২। উল্লঙ্ঘ্য ; খণ্ডনীয়। অকাট্য— অখণ্ডনীয়। কাঠ ( * ) [म९-कांछे । कjü झ:] वि, ইন্ধন ; দার : কাষ্ঠ । প্র—“কাঠ কাটে বস্ত্র কাটে কাটে সমুদয়।” ২ । [ বৃক্ষের ভিতরের বা ছালের নিয়ে কঠিন অংশ হইতে লক্ষণায় ] হাড় ; অস্থিপঞ্জর । প্র—দেহে আর আছে কি, কাঠ বাহির হয়ে পড়েছে । তুল—দেহ ত নয় একথান তক্ত । কাঠকৃয় (কাঠুকুআ ) [সং—কাষ্ঠকূপ । কাটকুর ত্রঃ ] ৰি, কাষ্ঠনির্মিত জলসেচনী ;