পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


! বাঙ্গালীর গান و ميا لا ভবের ভাবা ধন, শিবের সেবা চরণ, ধৰ্ম্মার্থ কাম মোক্ষ উপেক্ষ, যেন জন্ম জন্মান্তরে পাই ॥ দুর্গানাম উপলক্ষ যার । চন্দনাক্ত রক্ত জব ল’য়ে, নিত্য যেই জন, সত্য আচরণ, কোরে শ্রীমন্তে অভিষিক্ত, জাহ্নবীজলযুক্ত, তীর্থ পৰ্য্যটন কি কার্য্য তার । দিব অরিক্ত পদদ্বয়ে । গয়া গঙ্গা ব্রজ বারাণসী, বলে নিৰ্ব্বাণে কি আর হবে, হয় ভ্রমণে ভ্ৰম তীর্থ, বিজ্ঞান দেহি মে শিবে, কাবেরী কুরুক্ষেত্র, ঐ পদে যত তীর্থরাশি । স্মরণ করিয়ে তারা, মুদিয়ে নয়নতার, বদনে তারা তারা গুণ গাই ॥ সজ্ঞানে, এই ভবে আসি যাই। ওম, অলস-নাশন, রসনার বাসন, ঘোষণয় ঘুষি তব নাম ; ওমা শয়নে স্বপনে, জীবনে মরণে, দুর্গাবোলে ডাকি অবিশাম ॥ যজ্ঞেশ্বরী। ইনি এক স্ত্রী-কবি। ভোলা ময়র নীলু ঠাকুর প্রভৃতির সমসাময়িক । ইহঁারও এক কবিব দল ছিল। যজ্ঞেশ্বরী সেই দলের গান নিজে রচনা করিতেন । কৰ্ম্মক্রমে আশ্রমে সখা হলে যদি অধিষ্ঠান ; অনেক দিনের পরে, সখা তোমারে, হেরে মুখ, গেল দুঃখ, | দেখতে পেলাম চোখেতে । দুটো কথার কথা বলি প্রাণ ॥ ভাল বল দেখি, তোমার সখার সংবাদ, আমায় বন্দী করে প্রেমে, ভাল ত আছেন প্রণেতে ॥ এখন ক্ষান্ত হলে হে ক্রমে ক্রমে, তার মনে ত নাই এ অধীনীরে, দিয়ে জলাঞ্জলি এ আশ্রমে। নবীনার প্রাণধন, হয়ে তিনি এখন, আমি কুলবর্তী নারী, পতি বই আর জানিনে ; ভেসেছেন সুখসাগরে । এখন অধীনী বলিয়ে ফিরে নাহি চাও ; ; ভাল মুখে থাকুন তিনি, তাতে ক্ষতি নাই, স্বরের ধন ফেলে প্রাণ,— আমায় ফেলে গেলেন কেন শাখের করতে | পরের ধন আগুলে বেড়াও । বলে বলে প্রাণনাথেরে, নাহি চেন ঘর বাসা, কি বসন্তু কি বরষা, বিচ্ছেদকে তার ডেকে নে যেতে । সতীরে করে নিরাশ, যদি থাকে ধার,ন হয় শুধেই আসবো তার ; অসতীর আশা পূরাও। কেন তসিল করে পোড়া মসিল বরাতে । রাজ্যে থেকে ভাৰ্য্যের প্রতি কার্ধ্যে না কুলাও ৷ আমার হল উদোর বোঝা বুধের ঘাড়েতে। তোমার মন হল বার বাগে, তিনি প্রাণ লয়ে হে হলেন স্বতস্তর, গেল জন্মট ঐ পোড়া রোগে, মদন তা বুঝে না, বল্পে শুনে না, আমার সঙ্গে দৈখা দৈবার্থ যোগে । আমার ঠাই চাহে রাজকর। কথা কহিছ আমার সনে, দেখি ধাপ দেশের পাপ বিচার, মন রয়েছে সেখানে, দোহাই আর দিব কার, প্রাণ-মনে কর সখা, পাখা হলে উড়ে যাও। সদা প্রাণ বধে কোকিল কুহুস্বরেতে ॥ து_கத s-mm-mp