পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/১১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


जाएँथ अल 事系 ঘটতে পারে আমি তাই জানতাম না। তার ওপর আমার বয়স ওর তুলনায় অনেক বেশি। দেখতেও আমি এমন কিছু কল্প পুরুষ নয়। না, অবাক করেই দিয়েচে বটে। পান্না নীলিমার সঙ্গে মুজরো করতে যাবে বেথুয়াডহরি, আমি বাস আগলে তিন চার দিন থাকবো এমন কথা হোল । বাবার দিন হঠাৎ ও আমাকে বললে—তুমি চলে। —সেটা ভালো দেখাবে ? —খুব দেখাবে। এই বাসাতে এক পড়ে থাকবে, কি খাবে, কি না থাবে। সেখানে হয়তো কত ভাল ভাল খাওয়া জুটবে। তুমি খেতে পাবে না । —তাতে কি ? —তাতে আমার কষ্ট হবে না ? —সত্যি, পান্না ? -श्रांही-ह], छ६ ! পান্না ছাড়লে না। ওদের সঙ্গে আমায় যেতে হল বেথুয়াডহরি। ভাল কাপড় পরে যেতে পারবো না বলে আধময়লা জামা কাপড় পরে ওদের সঙ্গে গেলাম। সারা রাস্তায় ট্রেনে মহাকুত্তি। আমি যে ডাক্তার সে কথা ভুলে গিয়েচি। ওদের দলে এমন মিশে গিয়েচি যেন চিরকাল খেমটাওয়ালীর দলে তল্পিতল্লা আগলেই বেড়াচ্চি । পান্না বললে—তুমি যে যাচ্ছ, তুমি নিগুণ যদি জানতে পারে ? —বয়েই গেল। —ডুগি-তবলা বাজাতেও পারে না ? -किहू मां । —তোমাকে আমি শিখিয়ে দেবো। ঠেকা দিয়ে যেতে পারবে তো অন্ততঃ । দলে একটা কিছু বাজাতে না জানলে লোকে মানবে কেন ? -निषिe छूमि । so বেথুয়াডহরি গ্রামে বারোয়ারি যাত্রা হচ্চে। সেখানকার নায়েবমশায় উদ্যোগী। নায়েৰমশায়ের নাম বন্ধুবিহারী জোয়ারদার। বয়েস পঞ্চাশের ওপর, কিন্তু লম্বা-চওড়া চেহারা, একতাড়া পাকা গোফ, বড় বড় ভাটার মত চোখ। প্রমথ বিশ্বাস বলে কোন জমিদারের এস্টেটের নায়েব । আমাকে বললেন—তোমার নাম কি হে ? আসল নামটা বললাম না। —বেশ, বেশ ! তুমি কি করো ? —আজো আমি ভাত রাধি । —ও, তুমি বাজিয়ে টাজিয়ে নও। च्-जांYख ब ।।