পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/১৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


म*लेि 38s —তাতে কি হয়েছে ! বন্ধুলোক—খাবে না ? অাদর ক'রে কেউ খেতে চাইলে••• —সে আমি জানি গো, জানি । তোমার বন্ধু খেতে পায় নি, তা নয়। আমি তেমন বাপের মেয়ে নই। খেতে চেয়ে কেউ পায় না, এমন কখনো হয় নি আমার কাছে । —সে কথা যাকৃ। এখন আমাকে কি খেতে দেবে, বলে ? —অনঙ্গ হাসিয়া বলিল—এখন বলবো না, খেতে ব'সে দেখবে । —কি, শুনি না ? –পিঠে-পুলি, পায়েস। —খুবভালো—সেখানেবাসে-ব'সে ভাবতাম,শীতকালে, একদিনপিঠেমুখেওঠেনি এখনও। —ষত খুশী খেও-এখন। স্ত্রীর সেবা-স্বত্বের হাত ভালো। অনঙ্গ কাছে বসিয়া স্বামীকে যত্ন করিয়া খাওয়াইল— পান সাজিয়া ডিবায় আনিয়া বিছানার পাশে রাখিয়া বলিল—ঘুমোও একটু। গাড়ীতে আসতে বড় কষ্ট হয়েচে, না ? গদাধর আদর বাড়াইবার জন্য বলিলেন–পিঠটায় যা ব্যথা হয়েচে–একেবারে শিরদাড়ায়। গাড়ীর বাকুনিতে••• wo অনঙ্গ ব্যস্ত হয়ে বলিল—এতক্ষণ বলে নি ? দাড়াও, তেল গরম করে আনি । —এখন থাকৃ। ঘুমিয়ে উঠি, তারপর। —আমি যাই, মশারি ফেলে দিয়ে আসি মাছি লাগবে । গদাধরের ঘুম ভাঙিল বৈকালের দিকে। সত্যই গায়ে ব্যথা হইয়াছে বটে, তিনি ষে স্ত্রীকে নিতান্ত মিথ্যা বলিয়াছেন—এখন দেখা যাইতেছে, তাহা নয়। সেদিন সন্ধ্যার দিকে গদাধরের জর আসিল। রাত্রে কিছু খাইলুেন না—অনঙ্গ ডাক্তার ডাকাইল। কুইনাইনের ব্যবস্থা হইল। কারণ, ডাক্তারের মতে এটা খাটি ম্যালেরিয়া-জর ছাড়া আর কিছু নয় । পরদিন সকালে নিৰ্ম্মল দেখা করিতে আসিল । অনঙ্গ তখন সেখানে ছিল না, গদাধর বলিলেন—ওদিকে কিছু হলো ? —এবার কিছু টাকা ছাড়ো”হয়েছে একরকম। —কত — 變 —ত আমি অনেক কষ্ট্রে শ'পাঁচেক দাড় করিয়েছি । —কাজ কেমন পাওয়া যাবে ? টেণ্ডার পাঠিয়ে দিয়েচি । —হাজার পাচ-ছয় টাকার কাজ হবে, মনে হচ্ছে ! —তাহ’লে একরকম পোষাতে পারে। তবে একটা কথা, তোমার বৌদিদি যেন না টের পায় ! নিৰ্ম্মল ধুৰ্ত্তের হাসি হাসিয়া বলিল-আমি এত কাচা ছেলে, তুমি ভেব না। কাকপক্ষীতে জানতে পারবে না । --কাল বিকেলের দিকে এসো। টাকা যোগাড় ক’রে রেখে দেবো।