পাতা:বিভূতি রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড).djvu/৩৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(9ềịy विफूडि-ब्रध्नांदनी যখন ওর জরের ঘোর কাটলো, তখন রাত হয়েচে । হারু চোখ মেলে চেয়ে দেখলে ভক্তপোশের কোণে দেওয়ালের গা ধেবে রেড়ির তেলের পিদিম জলচে, ঘরে কেউ নেই। জর ছেড়ে গিয়েচে । তখনকার ক্ষিদে এখনও রয়েচে । সে কিছু খায় নি দুপুর থেকে । মা কোথায় গেল ? সে ক্ষীণ স্বরে ডাকলে—ও—মী—আ—জা— কেউ উত্তর দিলে না । মা রান্নাঘরে কাজ করচে বোধহয়, কিংবা হয়তে পাশের লিতাই কাকার বাড়ী গিয়েচে । একটু পরে ওর মাকে সন্তপণে পা টিপে টিপে ঘরের মধ্যে ঢুকতে দেখে ও একটু অবাক হয়ে গেল। মা অমন করে হাটচে কেন ? আমসত্ব চুরি করবে নাকি ? সে তো আমসত্ত্ব চুরি করৰার সময় অমনি’মা এসে ওর মুখের ওপর ঝুকে দেখতে গেল। চোখ তাকিয়ে থাকতে দেখে যেন একটু অবাক হয়ে গিয়ে নরম মোলায়েম স্বরে বললে—বাবা হারু ! কেমন আছ বাবা ? —ভালো । —দেখি ? ওর গায়ে হাত দিয়ে ওর মা তাড়াতাড়ি বলে উঠলো—ও, কি ঘাম ঘেমেচিস! এ, সব যে ভিজে গিয়েচে । হারুও তা লক্ষ্য করলে বটে। কাথা ভিজে সপ সপ করচে ! ও বললে —ম, আমার ক্ষিদে পেয়েচে । SBBB BB BB S DDBS BB ggB S BB BB BBBS BBBS BBBS BKLS আগচি আমি । মা ঘর থেকে চলে গেলে ও ভাবলে মা এমন নরম হয়ে গেল কেন ? অন্য সময় মা তো থেতে চাইলে বলে ওঠে—জর ছাড়তে না ছাড়তে ক্ষিদে ! ছেলের কেবল ক্ষিদে আর খাই খাই, জর হয়েচে, চুপ করে শুয়ে থাক । 姆 কিন্তু মা আজ আমন মিষ্টি, অমন মোলায়েম স্বরে কথা বলচে কেন ? পা টিপে টিপে হাটহঠাৎ হারুর মনে পড়ে যায় আজ না সেই কুমড়োকাটা অামাবস্তে ! ওঃ, ভালো কথা মনে পড়েচে । এখন সবে সন্ধ্যে, তার তো জর ছেড়ে গিয়েচে । এইবার মন্ট-কে ডেকে নিয়ে গানি বুড়ীর বাড়ী শসা চুরি করতে যেতে হবে। আরও একটু রাত হোক। ততক্ষণ সে খেয়ে নিক। ওর মা একটু বার্লি নিয়ে ঘরে ঢুকে বললে—এটুকু খেয়ে নাও তো বাবা । উঠে না, শুয়ে থাকো লক্ষ্মী ছেলে—ও লক্ষ্মী ছেলে আমার-- ও বিস্থিত স্বরে বললে—কেন, আমার সে ওবেলাকার রুটি ? আমি খেয়ে শসা কাটতে যাখে এক জায়গায় —জাজ কুমড়োকাটা অামাবস্তে যে ! জানো না y ওর মা বিষন্ন ভাবে ঘাড় নেড়ে বললে—খুব জানি বাবা, তুমি শোও । কুমড়োকাটা আমাৰস্তে গিয়েচে কল—তুমি এই ছুদিন ধরে বেছশ। মা মঙ্গলচণ্ডী, সারিয়ে দাও মা, সেরে গেলে পুজো পাঠিয়ে দৰে বটতলায়— জোড়হাতে বটতলার উদ্দেশে ওর মা প্ৰণাম করে ।