পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/৩০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চুল ও কমনীর স্বভাব দেখিলে বাস্তর্কিই যুবকদিগকেও যুবতী লেপছা এই লেপছা জাতির মধ্যে রোঙ্গ ও খাম্বা নামে দুইটা থাক আছে । প্রথমোক্ত লেপছা সম্প্রদায় আপনাদিগকে সিকিমের আদিম অধিবাসী বলিয়া স্বীকার করে। সাধারণের বিশ্বাস, পাম্বীগণ চীনসাম্রাজ্যের অন্তর্গত থাম ও দেশ হইতে এখানে আসিয়া বাস করিয়াছে। কিংবদন্তী এই—প্রায় আড়াই শতবৎসর পূৰ্ব্বে, অর্থাৎ সিকিমে বৌদ্ধধৰ্ম্মবিস্তারের পর বৌদ্ধলামাগণ সিকিমজনপদের একজন রাজা নিৰ্ব্বাচন করিবার জন্ত উক্ত গাম প্রদেশে দূত প্রেরণ করেন । থাম্বারা রাজা নিৰ্ব্বাচিত করিয়া পঠাইলে তিনি ও তাহার আত্মীয়গণ এখানে অসিয়া বাস করিয়াছিলেন । তাছাদেরই বংশধরগণ এখন পুৰ্ব্বতন বাসস্থানের নামে এথানে পরিচিত রহিয়াছে, বাস্তবিক পক্ষে তাহাদের মধ্যে ফ্রাতিগত কোন পার্থক্য নাই। উভয় থাকের পরম্পরের মধ্যে অবাধে আদান প্রদান হইয়া উভয়ে এক্ষণে একটা জাতি বলিয়া গণ্য হইয়াছে । বর্তমান জাতিতত্ত্ববিদগণ বলেন যে, দুইট মোঙ্গলীয় উপনিবেশ পর্য্যায়ক্রমে সিকিমে আসিয়া বসতি করায় সম্ভবতঃ এই নামপার্থক্য ঘটিয়াছে। ডাঃ কাম্বেল তিব্বতযাত্রা উদ্দেশে সিকিমে অবস্থানকালে এই জাতির আকৃতি প্রকৃতি সম্বন্ধে যে বিবরণ প্রদান করিয়াছেন, । তাহা পাঠ করিলে এই জাতির আচারনীতি সম্যক্ উপলদ্ধি ৬ইতে পারে। লেপছাগণ থৰ্ব্বাকৃতি, সাধারণ দৈর্ঘ্য ৪ ফিটু ৮ ইঞ্চি, কদাচ ৫ ফিটু ৬ ইঞ্চি লম্বা লোক দেখা যায় । পুরুষের অনুরূপ রমণীগণও খৰ্ব্বাকার। লেপছার দৃঢ়কায়, বলিষ্ঠ এবং বিস্তৃতবক্ষ, দেহে মাংসের আধিক্য হেতু তাহদের গঠন সুবলিত ও কমনীয় ইতয়াছে । গাত্রবর্ণ দুগ্ধের ন্তায় সাদা, চক্ষুদ্বয় কর্ণায়ত, চলিত কথায় যাহাকে পটোলচেরা বলে । শীতপ্রধান স্থানে বাসনিবন্ধন তাহীদের গণ্ডদ্বয়, এমন কি, সৰ্ব্বশরীর গোলাপের দ্যায় রক্তাভ হইয়া থাকে। মুখারুতি মোঙ্গলীয় ঢঙ্গের চেপ্টা ও গোল এবং নাক খাদা ন হইলে তাহাদিগকে সৰ্ব্বাঙ্গসুন্দর বলা যাইত । লেপছা স্ত্রী ও পুরুষদিগের মধ্যে এই সৌন্দৰ্য্যপ্রভা এতই বলবতী যে, সহজে তাঁহাদের মধ্যে পার্থক্য নির্দেশ করা যায় । না । অবয়বদির সুবলিত গঠন, মাথার মধ্যস্থানে সাতি, আলখাল্লার দ্যায় পরিচ্ছদ, নয়নকোণে বিমল হাস্তরেখা, বিনান বলিয়ু ভ্রম হয়। প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও রমণীদিগের মধ্যেও প্রায় ঐৰূপ, বিশেষের মধ্যে এই যে, পুরুষের মাথায় একটী বিনাৰ্মা ও স্ত্রীলোকদিগের মধ্যে ছুইটী বা তিনটী বিনানী থাকে। ইহার স্বভাবতঃ অপরিস্কার। গ্রীষ্ম ও শীতের সময় | ইহার কখনই গাত্র ধৌত করে না। এই সময়ে ইহাদের l [ w& & о J লেপছা গাত্রে প্রচুর ময়লা জন্মে। তখন ইহার কাছে আদিল এপ প্রকার ভেপসা গন্ধ পাওয়া যায়। বর্ষাকালে যখন বারিপাত হইতে থাকে, তখন ইহার কার্য্য উপলক্ষে বাটীর বাহিরে আসিলেই ঐ গাত্রমল ধৌত হইয়া যায়। এই সময়ে ইহাদের শরীর তুর্গন্ধহীন হয় এবং কমনীয় কাস্তির সহিত রূপপ্রভা উথলিয়া উঠে। ধৰ্ম্মভীরুতা ও লোকরঞ্জকতা-গুণে ইহাদের এই সৌন্দৰ্য্য আরও বৃদ্ধি পাইয়াছে। পাশ্ববর্তী স্থানবাসী ভোটিয়া, লিম্বু, মুর্শ্বি ও গুরুঙ্গ প্রভৃতি জাতি অপেক্ষ লেপছাদিগের জ্ঞানবুদ্ধি অধিক। বিনয়াদি সঙ্গগুণে ইহার অপরের চিত্ত সহজেই আকৃষ্ট করিতে পারে। কখন ইহার স্বজাতির সহিত বিবাদ করে না। অকস্মাৎ কোন কারণে ক্রোধের উদ্রেক হইলে, ইহার রাগিয়া উঠে বটে ; কিন্তু সময়াস্তরে ইহাদিগকে সেই অষ্ঠায় ক্রোধের কারণ নির্দেশ করিয়া বুঝাইয়া দিলে, ইহার পরিতাপ করে। ইহাদের সকলের নিকট ভোজালী নামক ছুরিকা থাকে বটে, কিন্তু ক্রোধের উদ্রেক হইলে কখনও কাহারও বক্ষে বসায় না । আহার, বিহার, বাক্যালাপ ও পানাদি বিষয়ে ঘোর সামাজিকত দৃষ্ট হয়। ইছারা পৰ্ব্বতজাত ফলমূল ও শাকশব জী থাইতে বরং ভালবাসে, তথাপি কাহারও অন্তায় ব্যবহার সহ্য করিতে চাহে না । দাৰ্জিলিঙ্গে ইহার ইংরজের অtদালতে আসিয়া বিচার প্রাগী হয় । উপরোক্ত শ্রেণীবিভাগ ব্যতীত ইহাদের মধ্যে বংশগত কয়ট বিভাগ অাছে, উহ থর নামে খ্যাত। তাহার মধ্যে বরফুঙ্গপুষে ও অদিনপুযে বংশীয়গণ সৰ্ব্বাপেক্ষা সম্মানিত এবং সিঙদ্যঙ, তিঙ্গিলমুঙ্গ, রঙ্গোমুঙ, তাজু কমঙ্গ, স্বও গুটুমুঙ্গ, নামজিস্তমুণ্ড, লুকসোম ও সঙ্গমি নামক অপর আটটা থর সমাজে অপেক্ষাকৃত হীনমর্যাদ বলিয়া গণ্য। উপরোক্ত বরফুঙ্গপুষো ও অদিনপুষোর নিম্নোক্ত আটট থরের মধ্যে আদান প্রদান করে না । পক্ষান্তরে অপর ৮ট থরের লোকেরা পরম্পরে এমন কি,লিমুজাতির মধ্যেও পুত্রকন্যাদির বিবাহ দিয়া থাকে। ইহাদের মধ্যে এক থরের মধ্যেও বিবাহ হইতে দেখা যায়। কখন কখন মামেরা, চাচেরা প্রভৃতি প্রথায় ৩ বা ৪ পুরুষ বাদ দিয়া বিবাহ সম্বন্ধ স্থির করে। যেখানে পাত্র মিত্র দত্তক সম্বন্ধযুক্ত হয়, সেই খানে নয়পুরুষ বাদ চলে । বিবাহকালে লামারাই পৌরোহিত্য করে । ছুই জন বন্ধুর পত্নী আসিয়া বিবাহকালীন অপরাপর আয়োজন ও ক্রিয়াদি সম্পন্ন করিয়া থাকে। বালিকাদিগের প্রধানতঃ ১৬ হইতে ১৮ বৎসরের মধ্যে বিবাহ হয় এবং যুবকের অর্থসন্ধুলন করিতে পারিলেই বিবাহিত হইতে পারে। কম্ভাপণ দিবার শক্তি --