পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/২১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাদ প্রক্ষালন পাদপাশ (পুং) পাদস্ত পাশ । অশ্বদাম রজু, পৰ্য্যায়— দামাঞ্চল । ( হেম ) গদগনী ( স্ত্রী) পাদপাশ-স্থিয়াং গৌরাদিত্বাৎ উষ, শৃঙ্খলা, শিকলী । ( ক্টেস্ট্রি ) পাদপীঠ (ক্লী ) ੋ। পীঠস্ । পাদস্থাপনাসন, যে পীঠের উপর পা রাখা যায়। চলিত পা-রাখা-টুল । পর্যায়-পদাপন । "বিতানসহিতং তত্র ভেজে পৈতৃকমাসনং । চূড়ামণিভিরুদ্রষ্ট-পাদপীঠং মহীক্ষিতাং ॥” ( রঘু ১৭২৮) পাদপীঠিকা (স্ত্রী) পাদপীঠং সাধনৰেনাস্ত্যস্ত ইতি পাদ-পীঠ ঠন। ১ নাপিতাদি শিল্প । ২ পাদপীঠ । “নাপিতাদিকশিল্পে তু কারিক পাদপীঠিকা।” ( শল্পমালা) পাদপূরণ (রী ) পাদস্ত পূরণং ৬তৎ। ১ পদের পুরণ, শ্লোকের চতুর্থাংশের নাম পাদ। চ, বা, তু, হি ইত্যাদি পাদপুরণ শৰ্ম্ম । ২ বাক্যালঙ্কার । পাদপ্রক্ষালন ( ক্লী ) পাদয়োঃ প্রক্ষালনম্। চরণধাবন, পা-ধোয় । ইহার গুণ—মেধাজনক, পবিত্র ও আয়ুষ্কর এবং অলক্ষ্মী ও কলি পাপনাশক । ( রাজব” ) "পদ প্রক্ষালনং পাদ-মালয়োগশ্রমাপহং । চক্ষুঃপ্রসাদনং বৃষ্যং রক্ষোঘং প্রীতিবৰ্দ্ধনং ” ( সুশ্রুত চিকি° ২৪ অ” ) আহিকতত্বে লিখিত আছে,—অfচমন করিবার পূর্বে পাণি ও পাদপ্রক্ষালন করিতে হয় । দেবল লিখিয়াছেন—প্রথমে পুৰ্ব্বমুখ হইয়া পাদপ্রক্ষালন করিবে। দৈবকীৰ্য্যে উত্তরমুখ হইয় এবং পিতৃকার্য্যে দক্ষিণমুখ হইয়া পাদপ্রক্ষালন করিবে । “প্রথমং প্রায়ুখঃ স্থিত্বা পাদে প্রক্ষালয়েচ্ছনৈঃ। উদয়ুখে বা দৈবত্যে পৈতৃকে দক্ষিণমুখঃ।” গোভিল লিখিয়াছেন, প্রথমে বামপাদ পরে দক্ষিণ পাদ ধুইতে হয়। ‘সবাং পাদমবনেনিজে ইতি সবাং পাদং প্রক্ষালয়তি । দক্ষিণং পদমবনেনিজে ইতি দক্ষিণং পাদং প্রক্ষীলয়তি । ( আহিকতত্ত্ব ) । অশ্বিলtয়ন-শ্রেীতসুত্রে লিখিত আছে, ব্রাহ্মণ যদি ব্রাহ্মণের পাদপ্রক্ষালন করিয়া দেয়, তাহ হইলে প্রথমে দক্ষিণ পা পরে বাম পা ধুইয়া দিবে, কিন্তু শূদ্র অগ্রে বাম পা পরে দক্ষিণ পা ধেtয়াইয়া দিবে। কিন্তু নিজে পা ধুইবার স্থলে প্রথমে বামপাদ পরে দক্ষিণ পাদ ধুইতে হয় । বাচস্পতিমিশ্র ষে দক্ষিণ পাদপ্রক্ষালনীনস্তর বামপাদ প্রক্ষালনের কথা বলিয়াছেন, তাহ যুক্তিসঙ্গত নহে।* ( রঘুনন্দন )

  • "ব্ৰাহ্মণশ্চেস্থ দক্ষিণং প্রথমর্মিতি পুত্ৰং, তস্য পারে। যদি ব্রাহ্মণঃ প্রক্ষালয়তি, তদ। দক্ষিণং দাতব্যং প্রথমমিতি মন্তব্যং ন সবাং তথা প্রক্ষী

[ ২১১ ] পাদরজস্ | পাদপ্রতিষ্ঠান ( ) পাদপীঠ, পাসন, মোড়া। (ভারত ) পাদপ্রধারণ (কী ) পাদে প্রধার্যোতে কণ্টকাদিভো রক্ষ্যেতেইনেনেতি, প্র-ধু-ণিছ লুটু। পাদুকা। কোন কোন পণ্ডিতের মতে পাদপ্রধারণ শব্দে পাদুকা । ● পাদপ্রহর (পুং ) পাদস্ত পাদেন বা প্রহারঃ । পদাঘাত, চলিত লাথিমীয়া । “দাসে কৃতাগলি ভবভূচিতঃ ७ङ्गार পাদগ্রহার ইতি হনরি মাত্র দুয়ে। উদ্যৎকঠোরপুলকাঙ্কুরকণ্টকাঞ্জৈখদ্ভিদ্যতে মুচুপদং নক্ষু স ব্যথা মে ॥” (সাহিত্যদ” > *188) পদবদ্ধ (ত্রি ) পাদশ্লোকে রচিত, শ্লোকের এক চরণযুক্ত। “পাদবন্ধগায়ত্ৰাদিছনঃ” ( প্রস্থানভেদ ) পদবন্ধ (পুং ) পাদশৃঙ্খল, যদ্বারা পা বাধা যায়। পদবন্ধন ( ) পাদয়োর্গোমহিষাদীনাং যম্বন্ধনং। গো মহিযাদির বন্ধন। (জটাধর ) বাতানেনেতি বন্ধ-করণে লুই। পাদয়োর্বন্ধনং, বন্ধনসাধনৰস্তু। ২ গোমহিষাদির পদবন্ধন দ্রব্য। ‘স তু শৃঙ্খলকঃ কাষ্ঠময়ৈঃ স্তাৎ পাদবন্ধনৈঃ ॥’ (হেমচ” ৪৩২১) পদভাগ (পুং ) পাদয়োর্ভাগঃ ৬তৎ। ১ চরণের অধোভাগ । (হেম )। পাদমিতঃ ভাগঃ মধ্যলো” কৰ্ম্মধা"। ২ চতুর্থাংশ। পাদভাজ (রি ) পাদং ভজতে ভঞ্জ-ধি। পাদভজনাকার, যে সিকি অংশ পাইতে পারে । “ন চাপি পদভাকু কৰ্ণঃ পাওবানাং নৃপোত্তমঃ।” ( ভারত ৩৷১৫২১৬ ) পাদভুজ (পুং ) শিব। (ভারত ১৩১৭৯। ) পদযুদ্রা (স্ত্রী) পদচিহ্ন, পায়ের দাগ। “ব্ৰহ্মহত্য পাদমুদ্রা পাদমুদ্রমুযায়িনী।" ( রাজতর° ৪১১৩ । ) পাদমূল (স্ট্র ) পাদয়োমূলং তৎ। ১ চরণাধোভাগ। ২ চরণ সমীপ । ৩ প্রত্যন্তপৰ্ব্বতের অধোভাগ । “মহীং ভ্রমন্তে হিমবৎপাদমূল্যবাপত্ত্বঃ ” (কথাসরিৎ’ ১২৭) পাদরক্ষ (ত্রি ) পাদং রক্ষতি রক্ষ-অণ, । ১ চরণরক্ষক পায় কাদি ৷ ২ রথচরণরূপ চক্ররক্ষক । পাদরক্ষণ ( ক্লী ) পাদয়ে রক্ষণং যন্মাৎ । ১ পাদুকা । ( হেম ) ২ পাদের রক্ষণ । পাদরজস্ (স্ত্রী) পাদয়ে রজঃ পদধূলি, পায়ের ধূলা। লয়তীত্যযুবৃত্তাঘাখলায়ন: । দক্ষিণমগ্রে ব্রাহ্মণায় প্রধচ্ছেৎ, সৰ্য্যং পূজাDDD S DD BBBB BBBB BDDDB BBBBS BDD DDiS *ांशथक्रांलनांनद्धग्नर यांभ*ामeवक्रीणम९ वांछन्थ्रठिभिश्चाष्ट्राद्ध१८ह्ब्रभिडि ।” (अहिकठङ्ग ) ।