পাতা:বিশ্বকোষ পঞ্চম খণ্ড.djvu/৩৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গীত

গীত সূক্ষ, অভিশ্বন্মা, পুষ্ট, স্থপুষ্টিকা, রোকী, ফরালী, বিস্ফোটাস্ত এবং ভেদিনী এই বাইশটী শ্ৰুতি তারসপ্তকে হইয়া থাকে । ( সঙ্গীতরত্নাকরট ৩১৩ ) সংগীতসময়সারপ্রণেতার মতে নাসিক, কণ্ঠ, উর, তালু জিহা ও দন্ত এই এই ষড়বিধ স্থান সম্বন্ধে যে স্বর উৎপন্ন হয়, তাহার নাম ষড় জ। নাতিমণ্ডলের উৰ্দ্ধগত বায়ু কণ্ঠ ও শীর্ষ দেশে আহত হইলে ঋষভ অর্থাৎ বৃষভের নিনাদের ন্যায় ষে স্বর উৎপন্ন হয়, তাহার নাম ঋষভ , গন্ধৰ্ব্বগণের অতিশয় সুখ হেতু বলিয়া তৃতীয় স্বরেয় নাম গান্ধীর হইয়াছে। নাভির উৰ্দ্ধগত বায়ু আহত হইয়া হৃদয়ে যে স্বরের উৎপত্তি হয়, তাহাকে মধ্য বলে । ওষ্ঠ, কণ্ঠ, শির, হৃদয় ও নাভি এই পঞ্চস্থান-সম্বন্ধে যে স্বর উৎপন্ন হয়, তাহাকে পঞ্চম নামে উল্লেখ করা হয়। নাভির উপরিগত বায়ু, কণ্ঠ, তালু, শির ও হৃদয়দেশে ধৃত হইলে যে স্বর হইয় থাকে, তাহাকে ধৈবত ৷ যে স্বরে অপর সকল স্বর অবস্থিত বা বিরত হয়, তাহাই নিষাদ নামে অভিহিত । (১) কথিত শ্রুতিসমূহের পাঁচট জাতি আছে- দীপ্ত, আয়তা, করুণা, মৃদু ও মধ্য । ষড় জ স্বরের চরিটী শ্রুতি যথাক্রমে দীপ্ত, আয়ত, মৃদু ও মধ্যজাতীয় । এইরূপ ঋষভের তিনট করুণ, মধ্য ও মৃদু । গান্ধীরের দুইটী শ্রীতি দীপ্ত ও আয়তজাতীয়। মধ্যমের চরিট যথাক্রমে দীপ্ত, আয়ত, মৃদু ও মধ্য। পঞ্চমের চরিট মৃদু, মধ্য, আয়তা ও করুণা। ধৈবতের তিনটি করুণ, অtয়তা ও মধ্য এবং নিষাদেয় দুইট দীপ্ত ও মধ্য । এই দীপ্ত জাতি আবার চারি প্রকার—তীব্রা, রৌদ্রী, (১) "নাসা কণ্ঠ উরন্তালুজিহাদস্তান্তথৈব চ। বড় ভিঃ সংজয়তে যন্মাং তস্মাৎ বড় জ ইতি স্মৃত: । মভেঃ সমুদিতে যায়, কণ্ঠশীর্ষসমাহতঃ। ५षष्ठशत्ररक्षन् रुषा॥९ उभालूरुउ शैब्रिल । नाप्छः गभूश्प्ठिा शामूः रु%भौरंगभाश्उः । গন্ধৰ্ব্বস্থখহেতুত্বাং গান্ধারস্তেন কথাতে । যায়, সমুখিতো নাভেহৃদয়ে সমাহতঃ। भ५; इंttमtद्धशङ्कt:क भषाभ cरgन कौर्डिउ: ॥ পঞ্চস্থানসমুদ্ভূত পঞ্চমস্তেন সন্মত । নান্তে সমুখতে বায়ুঃ ठ९छ९इttन भूtठl षषा९ ठयांन् ४षवठ छैकाष्ठ । স্থাছে সমুথিতে বায়ু কণ্ঠতানুশিরোতঃ। निशैशछि चङ्गाः मार्र निषाशासन कक्षाउ ।” [#त्रीडब्लङ्गाक्ञ ९ ॥ २७ छैौ* ] V বজিক ও উগ্র। আয়তা পাচপ্রকার-কুমুদ্বতী, ক্রোধা, প্রসারিণী, সন্দীপনী ও রোহিণী । করুণ। তিন প্রকার—দয়াবতী, আলাপিনী ও মদস্তিকা । মৃন্থ চারি«यंकांङ्ग-शनां, ब्रठिक, £ीलि ७ भिङि । भक्षा झग्न প্রকার—ছন্দোবতী, রঞ্জনী, মার্জনী, রক্তিক, রম্য ও ক্ষোভিণী ! [জাতি সম্বন্ধে অপর বিবরণ সঙ্গীতশাস্ত্রে দ্রষ্টব্য। ] এই মৌলিক সাতট স্বরই বিকৃত হইয়। •দ্বাদশ প্রকার इहेग्न भएरु । हेशप्नज्ञ भप्पा बज्र छत्रग्न दिङ्कज्र श्हेब्र झाङ ও অচু্যত এই দুইপ্রকার হয়। বড়জে স্বাভাবিক চারিট শ্রুতি থাকে, ষডজের অস্তিম শ্রুতি হীন হইলে তাহাকে চু্যত এবং পুৰ্ব্ব শ্রুতি হীন হইলে তাহাকে অচ্যুত বলে । ঋষভে স্বাভাবিক তিনটী শ্রীতি, কিন্তু যদি বড় জের অস্তিম শ্রুতির সহিত মিলিত হইয়া যায়, তবে চতু:শ্রীতি বিকৃত ঋষভ হইয়া থাকে । গান্ধার মধ্যমের প্রথম শ্রীতি গ্রহণ করিলে ত্রিশ্ৰীতি বিরুতগান্ধার এবং মধ্যমের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রতি গ্রহণ করিলে চতুঃশ্রুতি বিকৃতগান্ধীর হইয়া থাকে। মধ্যম ষড় জের স্তায় চু্যত ও অচুতি ভেদে দুই প্রকার । পঞ্চম তৃতীয় শ্রুতিতে সংস্থিত হইলে তাহীকে ত্রিশ্ৰভি বিকৃত পঞ্চম এবং এই বিকৃত পঞ্চম মধ্যমের অস্তিমশ্রীতি গ্রহণ করিলে চতুঃশ্রুতি বিকৃত পঞ্চম হইয় থাকে। পঞ্চাময় অন্তিম শ্রীতিট ধৈবতে প্রবেশ করিলে চতুঃশ্রুতি বিরুত ধৈবত হইয় থাকে। নিযtদ ষড় জের প্রথম শ্রীতি গ্ৰহণ করিলে ত্রিশতি বিকৃত নিষাদ এবং বড় জের শ্রতিদ্বয় গ্রহণ করিলে চতুঃশ্রুতি বিকৃত নিষাদ হইয় থাকে। বিরুত দ্বাদশ ও মৌলিক সাত মিলিত হইয়া স্বর এক বিংশতি প্রকার হয়। ( সঙ্গীতর- ২৩৭-৪২ । ) সঙ্গীতশাস্ত্রে লিখিত আছে যে, ময়ূরের স্বাভাবিক স্বর ষড় জ, চাতকের ঋষভ, ছাগের গান্ধীর, ক্রৌঞ্চের মধ্যম, কোকিলের পঞ্চম, ভেকের ধৈবত এবং গজের স্বাভাবিক স্বর নিষাদ । (২) এই সকল স্বর হইতেই সকল প্রকার রাগ উৎপন্ন হয় । পূৰ্ব্বকথিত স্বর আবার চারি প্রকার বলা হইয় থাকেবাদী, সংবাদী, বিবাদী ও অনুবাদী। ষে রাগে ষে স্বর বাহুল্যে অর্থাৎ অনেকবার উচ্চারিত হয়, সেই রাগে সেই স্বরটিকে বাদী বলা যায়। রাগে বাদীই সৰ্ব্বপ্রধান, অপর স্বয় ইহার তামুগত থাকে। স্বরদ্বয় যে ষে শ্রুতিতে বিশ্রাস্তি লাভ করে, তাহার মধ্যে ১২ট অথবা আটট শ্রুতি থাকিলে পরস্পর পয়স্পরের সংবাদী স্বয় হয়। যেরূপ ষড় জশ্বর సి(t (२) “भयूझछाउकऋणप्कोकएकाकिणशष्ट्रaिlः । १छं ण४१छ्.श्रi्रौन् यमtछ्छt॥प्रद्धाभौ ॥' ( जशैऊब्र* २iss )