পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অণুবীক্ষণ অণুধৰ্ম্ম (পুং ) অণুঃ হুক্ষো কুঞ্জেয়ে ধৰ্ম্মঃ । দুর্বোধ ধৰ্ম্ম । অণুভা (স্ত্রী) অী হুন্না ভ দীপ্তির্যন্তাঃ। বহুস্ত্রী। বিদ্যুৎ। অণুমাত্র (ত্রি) অণু পরিমাণমস্ত অণুমাত্রছ। অল্পপরিমাণ। অণুরেবতী (স্ত্রী) অণুঃ হুঙ্কা বেৱতী তারা ইব। দস্তিবৃক্ষ । অণুবীক্ষণ (ক্লী) অণুঃ হুক্ষে বীক্ষ্যতে দৃশ্যতে অনেন, অণু-বি ঈক্ষ-লুটি করণে । কাচ নিৰ্ম্মিত এক প্রকার যন্ত্র। ইহা দ্বারা দেখিলে নিকটের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বস্তু বড় দেখায়। (কী), ভাবে লুট্টি। অল্পদর্শন। জগতে অনেক অত্যন্ত সূক্ষ্ম স্বল্প বস্তু আছে। চক্ষে কোন যন্ত্র না দিলে সেই সকল ক্ষুদ্র বস্তু কিছুই দেখা যায় না। যে যন্ত্রদ্বারা নিকটের অত্যন্ত ছোট ছোট বস্তু বড় দেখায় তাহার নাম অণুবীক্ষণ। দুই খানি সরা মুখে মুখে একত্র লাগাইলে যে প্রকার বাদামী আকার হয়, অণুবীক্ষণের কাচখানি দেখিতে ঠিক সেই রকম। ঐ কাচখানিই অণুবীক্ষণ কলের প্রধান যন্ত্র। ইংরাজিতে এই রকম আকারের কাচকে ডবল কনভেক্ষ লেন্স (double convex lens) to i je vi su serift কাচ সূর্য্যের দিকে ঠিক সোজা করিয়া ধরিলে তাহার ভিতর দিয়া সূৰ্য্যকিরণ বক্রভাবে বাহির হয় । বাহির হইয়। একত্র মিলিয়া যায়। কাচের কিছু দূরে একখানি কাগজ রাখিলে তাহার উপর অতিশয় উজ্জল একটা বিন্দু পড়ে। ঐ বিন্দুটকে কাচখণ্ডের প্রধান অক্ষপ্রদেশ (principal focus ) কহে। এক দিকে ঐ বিন্দু আর এক দিকে বাদামী কাচ, তাহার মধ্যস্থলে একটী ছোট দ্রব্য রাখিয়া পরে কাচখানির ভিতর দিয়া দেখিলে ঐ ছোট বস্তু বেশ বড় দেখায়। মনে কর, চ ও একটী দ্রব্য, ক খ বাদামী আকারের কাচ। ট বিন্দু প্রধান অক্ষাপ্রদেশ (principal focus) 5 e Rioto 5 foot * * . কাচের মধ্যে কোন স্থানে রাখা চাই। তাছা হইলে চ এবং ঙ হইতে আলোকরশ্মি কাচের ভিতর দিয়া বক্রভাবে প্রবেশ করবে। প্রবেশ করিয়ান দিকে বাহির হইবে । [ আলোক রশ্মি বক্র হইবার কারণ আলোক ! শব্দে দেখ ]। এখন (ন) হইতে চ ও দিকে চাৰিলে [*२१] অণুবীক্ষণ কাচের যে দিক দিয়া আলোক প্রবেশ করিয়াছে ঠিক সেই সেই স্থান দেখা যাইবে । কারণ কোন বস্তু হইতে আলোকরশ্মি বাছির হইয়া চক্ষে লাগিবার পূৰ্ব্বে যতই কেন বক্র হইয়া আসুক না,কিন্তু জালোক যে দিক দিয়া আসিয়া চক্ষে পড়ে ঠিক সেই দিক দিয়া সকল স্ৰষ্য দেখা वाग्न । [ ईशङ्ग इडाख् श्रांटगांठ *टक ८ण४] । इ बनि কাচ খণ্ডের মধ্যবিন্দু (optical centre) হয়, তাহ হইলে ছ ও এরং স্থ চ যোগ করিয়া বাড়াইয়া দিলে, এবং ন ক আর ন খ রেখাও বাড়াইয়া দিলে যেখানে সমস্ত রেখা গুলি পরম্পর মিলিবে,সেইখানে চ ও দ্রব্যটকে দেখা যাইবে । আর চণ্ড গ্রব্যটকে গ ঘ মত বড় দেখাইবে। কাচ খানির গঠন ও গুণানুসারে আলোকরশ্মি অধিক বা কম বক্র হয়। যত অধিক বক্র হইবে ন কোণ তত বড় হইয়া আসিবে এবং দ্রব্যটকেও তত অধিক বড় দেখাইবে। চ ঙ, ট বিন্দুর যত নিকটে থাকিবে, গ ঘ ততই বড় হইবে। কিন্তু তাহাতে দূরে দেখাইবে। অধিক দূরে গিয়া পড়িলে কোন দ্রব্য ভাল দেখা যায় না । যে আশ্চর্য্য যন্ত্রদ্বারা নিৰ্ম্মল জলে এবং বায়ুর মধ্যে কোটি কোটি স্বল্প সুহ্ম প্রাণী দেখা যায় এবং যদ্বারা স্বষ্টির অনেক অস্তৃত বিষয় আবিষ্কৃত হইয়াছে, তাহ এক থও কাচ ভিন্ন আর কিছুই নহে। দুই প্রকার অণুবীক্ষণ নিৰ্ম্মিত হইয়াছে। তাহার মধ্যে একটার আকার ও নিৰ্ম্মাণকৌশল অতিশয় সহজ। vir eers tats witwa (Simple micros cope) কহে। ক খ একটা লৌহ বা কার্ট ও লোৱা छोtद गैफ़ि रुब्रांटम श्रांटाइ। हैशङ्ग षण७कन्नै बोह हैऋीক্রমে উঠানো ও নামানো যায়। গ প্রান্তে পূৰ্ব্বঞ্চথিত মত একখানি বাঙ্গামী জাকারের কাচ কামো আছে } ইহার ভিস্তরদিদেখা যাইতে পারে। ইংৰ্কে দক্ষিপণ