পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৫০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমাবস্যা [ 8b ( ] অমাবস্থা অমা-বস-অপ, ঘঞ বী পৃ• সাধু। ততো গেীরা- উীপ । অমাবস্তা । (অমাবস্তপ্যমাবাসী। শব্বার্ণব ) । তামাবস্যা । অমাবাস্যা (স্ত্রী) অমা-সহ বসতোহস্তাং চন্দ্রার্কে অমা-বস-অধিকরণে ণ্যৎ নিপাতনাৎ হ্রস্বোপি । কৃষ্ণ পক্ষীয় পঞ্চদশ তিথি । শাস্ত্রকারের বলেন যে, অমাবস্তার দিন স্বৰ্য্য উপরে এবং চন্দ্র নিয়ে এই অবস্থায় এক রাশিতে অবস্থিতি করেন। র্তাহার। আরও কহিয়৷ থাকেন যে, অমাবস্তা তিথিতে চন্দ্র, সুর্য্যের কিরণে আচ্ছন্ন থাকে, তাই উহাকে কেহ দেখিতে পায় না। ‘অমাবস্তাত্বমাবাস্ত দর্শঃ হুর্য্যেন্দুসঙ্গমঃ’ । ( অমর )। ‘স্বৰ্য্যাচন্দ্রমসোর্য পরঃ সন্নিকৰ্ষঃ সামাবাস্তেতি । (গোভি০) ‘পরঃ সন্নিকর্ষ; উপর্যাধোভাবাপন্ন সমস্বত্রপাতষ্ঠায়ে নৈকরাগু বছেদেন সহাবস্থানরূপঃ’ । (স্মাৰ্ত্ত )। বিষ্ণুপুরাণের ২ অংশ ১২ অধ্যায়ে লিখিত আছে যে, কৃষ্ণপক্ষে দেবগণ ও পিতৃগণ চন্দ্রের স্বধাপান করিতে থাকেন। শেষে এক কলা অবশিষ্ট থাকিতে সুৰ্য্য সুষুম্ননামক রশ্মিদ্বারা তাহাকে পুনৰ্ব্বার পরিপুষ্ট করেন। 嵌 徕 谦 崇 যখন দুই কলা বাকি থাকে, সেসময়ে চন্দ্র, অমা নামক স্বৰ্য্যরশ্মিতে প্রবেশ করেন,তজ্জন্ত সে দিবসকে অমাবস্ত কহে । ( অমাখ্যরশ্মে বসতি অমাবস্তা তত: স্মৃত: )। অমাবস্তার দিন অহোরাত্র মধ্যে চন্দ্র প্রথমে জলে, তাহার পর লতার মধ্যে, পরিশেষে স্বৰ্য্যমণ্ডলে প্রবিষ্ট इन्। उरूछ अभारछांग्र cरुरु गड কিম্বা লতার পত্রাদি ছিড়িলে ব্ৰহ্মহত্যার পাপগ্ৰস্ত হইয়া থাকে। অমাবস্তা তিথিতে চন্দ্র এবং স্বৰ্য্য কি রূপে অবস্থান করেন উপরের গোভিল স্বত্রে স্মাৰ্ত্ত তাহার အတ္ႏိုင္ငံ ভাব প্রকাশ করেন নাই । চন্দ্র স্বৰ্য্য এবং পৃথিবী এই তিনটার সমস্বত্রপাত হইলে তৎকালে চন্দ্র যদি পৃথিবীর ও স্বর্ঘ্যের মধ্যবর্তী হয়, তবে সেই দিন অমাবস্তা হইয়া থাকে। এখানকার এই চিত্রে স্ব-স্বৰ্য্যমণ্ডল । ঘ—অমাবস্তার চন্দ্র, পূ–পূর্ণিমার চন্দ্র, মধ্যস্থলে পৃ— পৃথিবী। বিদুবিলুরেখা দ্বারা বৃত্তের যে কিয়দংশ দর্শিত ইয়াছে, ঐ পথ দিয়া পৃথিবী স্বৰ্য্যকে বেড়িয়া ভ্রমণ •রে। পৃথিবী, স্বৰ্য্যকে বেড়িয়া ভ্রমণ করিতেছে, এ * কে চক্রমণ্ডল আবার সেই সঙ্গে পৃথিবীকে বেড়িয়া ভ্ৰমণ করিতেছে। তজ্জন্ত স্বৰ্য্য, পৃথিবী এবং চন্দ্র এই তিনট প্রতিমাসে দুইবার করিয়া সমস্বত্রে অবস্থিতি করে। তাহার মধ্যে যে বার স্বৰ্য্য এবং পৃথিবীর মধ্য y স্থলে চন্দ্র আসিয়া পড়ে, সেই বার অমাবস্ত হয় এবং যে বার স্বৰ্য্য ও চন্দ্রের মধ্যস্থলে পৃথিবী আসিয়া পড়ে, সেই বার পূর্ণিমা হইয়া থাকে। এরূপ ঘটিবার কারণ এই, নিজে চন্দ্র জ্যোতিৰ্ম্ময় গ্রহ নহে—উহাতে সূৰ্য্যকিরণ প্রতিবিম্বিত হইলেই চন্দ্রমণ্ডল জ্যোতিৰ্ম্ময় হয়। কাজেই চন্দ্রের যে দিক হুর্য্যের দিকে ফিরিয়া থাকে, কেবল সেই দিকে রৌদ্র লাগে, অন্ত দিক্‌ অন্ধকারে আবৃত থাকে। অতএব চন্দ্রমওলের যে অংশ পৃথিবী এবং সুর্য্য এই উভয়ের দিকেই ফিরিয়া থাকে, কেবল সেই অংশই আমরা দেখিতে পাই। এই চিত্রে অ— অমাবস্তার চন্দ্র। উহা স্বৰ্য্য এবং পৃথিবীর মধ্যবর্তী হইয় পড়িয়াছে, সে কারণ উহার যে অংশ পৃথিবীর দিকে ফিরিয়া আছে সে দিকে স্বৰ্য্য কিয়ণ লাগিতেছে না, তাই আমরা চন্দ্রকে দেখিতে পাই না । তদ্ভিন্ন অমাবস্তার তিথিতে চন্দ্রমণ্ডল, পৃথিবীর নিকট হইতে অন্ত কোথাও অন্তৰ্হিত হইয়া যায় না । সূৰ্য্যগ্রহণের দিন গ্রহণের সময়ে চন্দ্রমওল ঠিক পৃথিবী এবং স্বর্ঘ্যের মধ্যস্থলে থাকে। তজ্জন্ত চন্দ্রদ্বার আড়াল পড়ে বলিয়। আমরা স্বৰ্য্যের কিয়দংশ কিছু কালের নিমিত্ত স্টেথিতে পাই না। আবার চন্দ্র সরিয়া গেলে তখন পুনৰ্ব্বার স্বৰ্য্যমণ্ডল দেখিতে পাওয়া যায়। এই রূপ চন্দ্রের ছায়াপতনই স্বৰ্য্যগ্রহণের কারণ। অমাবস্তার দিন স্বৰ্য্য, চন্দ্র এবং পৃথিবী সমস্বত্রে থাকে এবং চন্দ্রমওল উভয়ের মধ্যস্থলে আসে বলিয়। এই দিন স্বৰ্য্য গ্রহণ হয়, তদ্ভিন্ন অন্ত তিথিতে সূৰ্য্যগ্রহণ হইতে পারে না। এখন এই সন্দেহ হইতে পারে যে, প্রতি অমাবস্তাতেই ত স্বৰ্য্য, চন্দ্র এবং পৃথিবী সমস্থত্রে থাকে এবং চন্দ্রমওলও উভয়ের মধ্যস্থলে আসিয়া পড়ে, তবে প্রত্যেক অমাবস্ত তিথিতে স্বৰ্য্যগ্রহী হয় না কেন ? [ >રર ] •