পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৩৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লোহারভাগ [ ৩২৭ ] লোহার্জ ঐ সকল সর্দারেরা এখন স্বদেশে ও স্বসমাজে পূৰ্ব্ববৎ | কানুনগো उतत्र श्रावर रङाशत्रू কিষ্কিার অদৰে পূজ্য। তথার ইংরাজরাজের সুশাসন বিস্তৃত হইলেও, মুণ্ড বা ওরাওন-নেতৃগণের কর্তৃত্বের বিশেষ কিছুই খৰ্ব্বতা ঘটে সাই । তবে ইংরাজরাজত্বে বাস করিয়া আর তাহার পূর্ববৎ রণজয়ে অথবা লুণ্ঠন দ্বারা লন্ধ বন্দীকে নৃশংসন্ধাপ হত্য, ও অমানুষিক মহিষোৎসর্গ প্রভৃতি পাশবিক অত্যাচারের ধ্বমুষ্ঠান করিতে সমর্থ নহে। বৃটিশ গবর্ণমেণ্টের কঠোর শাসনে তাহার এখন *ांसु विठे । অনুমান ১৬১৬ খৃষ্টাম্বে মোগলসম্রাট জাহাঙ্গীর বাদশাহের রাজাকালে মোগল-সৈন্ত কোত্ৰণ ( আসল ছোট নাগপুর ) অধিকার করে। ঐ সময়ে এখানকার কোন কোন নদীতে হীরক পাওয়া গিয়াছিল। যুদ্ধবিজয় এবং হীরক প্রাপ্তির সংবাদে দিল্লীর রাজদরবারে মহাসমারোহে আনন্দোমাস হইয়াছিল। ইতিহাস হইতে জানা যায় যে, উক্ত ঘটনার পর ১৬৪০-৬০ খৃষ্টাব্দের মধ্যে মুসলমানগণ কএকবার উপযুপিরি পালামেী আক্রমণ করিলে বিফলমনোরথ হন, অবশেলে শেষোক্ত বর্ষে দাউদ খা পালামে দুর্গ আক্রমণ ও অধিকার করেন। তাহার বংশধরগণ ঐ দুর্গ মধ্যে ৩০ x ১২ ফিট আয়তন একখানি সুবৃহৎ চিত্রপটে তাহার আক্রমণ-কৌশল বিবৃত করিয়া রাথিয়াছেন। উহার অঙ্কন-পরিপাট্য সাধারণের দেথিবীর জিনিষ । দাউদ কর্তৃক পালামে দুর্গ-জয়ের পর হইতে ১৭২২ খৃষ্টাৰ পৰ্য্যস্ত এখানে আর ঐতিহাসিক উল্লেখবোগ্য ঘটনা দেখা যায় না । শেষোক্ত বর্ষে স্থানীয় সামস্তরাঞ্জ রণজিৎ রায় গুপ্তভাবে নিহত হন এবং তাহারই কনিষ্ঠ ভ্রাতৃপুত্র জয়কৃষ্ণ রায় গীতে উপবিষ্ট হইয়াছিলেন । কিছুদিন রাজ্যমুখ সন্তোগ করিয়া জয়ল্লষ্ণ একট ক্ষুদ্রযুদ্ধে প্রাণ বিসর্জন করেন। তদনন্তর তাঙ্গর পত্নী ও পরিবারস্থ সকলে বেহার প্রদেশের অন্তর্গত মেগ রা নামক স্থানে আসিয়া তথাকার কানুনগো উদ্‌বস্ত রায়ের আশ্রয় গ্রহণ করেন। উদ্ধৃবস্ত রায় ১৭৭০ খৃষ্টাব্দে মৃত রাজা রণজিৎ রায়ের পৌত্র গোপাল রায়কে পাটনায় আনিয়াছিলেন, পরে তিনি গোপাল রায়কে সঙ্গে লইয়া তথাকার ইংরাজ এজেণ্ট কাপ্তেম কাৰ্ণাকের সমক্ষে উপস্থিত হইয়া তাহাকে পালামেরাজের যথার্থ উত্তরাধিকারী বলিয়া ঘোষণা করেন। কানুনগোর প্রার্থনার কাপ্তেন কার্গাক গোপাল রায়ের রাজাপ্রাপ্তি পক্ষে ইংল্পাঞ্জগবর্ণমেণ্টের পক্ষে সাহায্য করিতে স্বীকৃত হন। তিনি তৎকালীন পালামেী-রঞ্জিকে পরাজিত করিয়া গোপাল স্নায় ও তীহার অপর দুই ভ্রাতাকে পাঁচ বৎসরের সনদ দিয়া তদেশ পরিত্যাগ করেন ৷ তম্বৰধি পালামেী ৰিভাগ ইংরাজাধিকৃত জামগড় জেলার অন্তৰ্ভুক্ত হয় । এই ঘটনার দুই বৎসর পরে, বিশ্বাসঘাতক গোপাল রায় কারারুদ্ধ হন এবং বসন্তু রায় গীতে আরোহণ করেন। ১৭৮৪ খৃষ্টাব্দে, পাটনামগয়ে গোপালঙ্কারের মৃত্যু ঘটে; ঐ বৎসরই রাজা বসন্তরায় পরলোকগত হইলে চুড়ামণ রায় রাজ্যাধিকার লাভ করেন। তিনি ১৮৯৩ খৃষ্টাব্দে ঋণালে জড়িত হুইয়া পড়েন । তজ্জন্ত বাকী খাজনার দাধিতে পালামেী সম্পত্তি বিক্রয় হইয়া যায় এবং বুটশ গবর্ণমেণ্ট রাজস্ব ধারত উছ স্বয়ং খরিদ করেন । গয়াজেলার অস্তুর্গত দেওঁবিভাগের রাজা ফতেমারায়ণ সিংহের সাহায্যলাভে উপকৃত হইয়া ইংরাজগবর্ণমেণ্ট প্রত্যুপস্কার ও পুরস্কার স্বরূপ ১৮১৬ খৃষ্টাৰো তাহাকে পালামে সম্পত্তি জায়গীর স্বরূপ স্বান করেন। রাজা ফতে নারায়ণ সুশৃঙ্খলে রাজস্ব আদায় করিতে পারেন নাই । তিনি বলপূর্বক নানা অত্যাচার করিয়া প্রজীয় সৰ্ব্বস্ব অপহরণ করিলে প্রজাবৰ্গ র্তাহার বিদ্রোর্থী হইয়া উঠে । ১৮১৮ খৃষ্টাব্দে ইংরাজগৰণমেণ্ট দানপত্রের সর্ব রহিড করিয়া ঐ সম্পত্তি পুনরায় গ্রহণ করেন এবং রাজাকে ক্ষতিপূরণস্বরূপ তাহার বেছারন্থ সম্পত্তি হইতে বার্ষিক ৩ সহস্র মুদ্র রাজস্ব কমাইয় দেন । ইংরাজ-গস্বর্ণমেণ্টের শাসনাধীনে আলিবার পর, পালামে৷ শাস্তুভাব ধারণ করিয়াছে। ১৮৩১ খৃষ্টাব্দে ছোট নাগপুরে কোলবিদ্রোহ উপস্থিত হয়। ইহাই ইতিহাসে "চুয়াড় বিদ্রোহ” নামে খ্যাত । ছোট নাগপুরের মহারাঞ্জের আত্মীয় ও অনুচরগণের অত্যাচারই এই বিদ্রোহের কারণ । ১৮৩২ খৃষ্টাৰো মার্চ মাসে ইংরাঙ্গের যত্নে উচ্ছা থামিয়া যায় । [ মানভূম খে। ] এই ভীষণ বিদ্রোহে কোলগঞ্জ এরূপ উত্ত্বেজত হইয়াছিল যে, অসংখ্য নরশোণিত পাতে তাহা প্রশমিত হয় নাই । বহুসংখ্যক গ্রাম লুষ্ঠিত ও দগ্ধ এবং নারক্তে কলুষিত হইবার পর গঙ্গানারায়ণ প্রভৃতি দমু্যদলনেতা ইংরাজহস্তে পরাজিত হইলেও আত্মসমর্পণ করে লাই। এই ঘোর সংঘর্ষের সময় কোলগণ উন্মত্ত পাদবিক্ষেপে এখানকার পাৰ্ব্বত্য প্রদেশ আলোড়িত করিলেও পালামে বিভাগের কোন ক্ষতি হয় নাই ; কিন্তু এই বিদ্রোহের পর, ইংরাজ-গবর্ণমেণ্টের শাসনবিভাগীয় যে সকল পরিবর্তন সাধিত হইয়াছে, তাহ হাজারিবাগ জেলার বিবরণী মধ্যে বিধৃত হইল। [ হাজারিবাগ দেখ i] উপরোক্ত চুয়াড়-বিদ্রোহের অব্যবহিত পরেই চেয়ে ও খরধার জাতি বিদ্রোহী হইয় উঠে। ১৮৩২ খৃষ্ট্রন্সে অবিলম্বে তাহ খামিয়া যায়। তদবধি ১৮৫৭ খৃষ্টারে সিপাহী ৰিয়াছ গধৰ এখানে আর কোনরূপ বিপংপান্ত হয় নাই। উক্ত বংশয়বার জাতি স্থানীয় বারগুপ্ত স্থাধিকাৰীৱ বিলম্ব অৰুতি হন।