পাতা:বুয়র ইতিহাস - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৪৪
বুয়রদিগের উৎপত্তি।

 পূর্ব্বকথিত বন্দীদিগের বিচার, পরিশেষে কেপনগরের হাইকোর্টেই হইয়াছিল। বিচারে ২ জনের জীবনদণ্ড ও ১৫ জনের কারাদণ্ড হয়; ১ জনকে বেত্রাঘাত করিয়া, দেশ হইতে বহিস্কৃত করিয়া দেওয়া হয়। অবশিষ্ট ২ জন বিচারের পূর্ব্বেই কালগ্রাসে পতিত হন। যাঁহারা জেলের ভিতর আবদ্ধ ছিলেন, ১৮০৩ খৃষ্টাব্দে, ডিমিষ্ট (De Mist) নামক একজন ডচ্‌দিগের প্রতিনিধি অনুগ্রহ করিয়া, তাঁহাদিগকে ছাড়িয়া দেন।

 যে সময়, পূর্ব্বকথিত বুয়রসম্প্রদায়ের সহিত ইংরাজদিগের গোযোগ উপস্থিত হয়, সেই সময় হটেণ্টট্‌ জাতির মধ্যে কতকগুলি লোক যখন দেখিল, তাহাদিগের জাতীয় সৈন্যগণ বুয়রদিগের বিরুদ্ধে, ইংরাজ সৈন্যগণের সহিত অস্ত্রধারণ করিয়াছে; তখন তাহারাও ঐ সকল বুয়রদিগের বিরুদ্ধে গুপ্তভাবে দণ্ডায়মান হইল। প্রকাশ্যে তাঁহাদিগের সহিত কোনরূপ যুদ্ধাদি না করিয়া, সুযোগ মতে তাঁহাদিগের গুলি বারুদ ও আহারীয় দ্রব্যসকল লুণ্ঠন করিয়া লইতে আরম্ভ করিল। বুয়রদিগের সহিত গোলযোগ মিটিয়া যাইবার পর, তাহারা আপনাপন কৃতকার্য্যের পুরস্কার পাইবার প্রত্যাশায়, স্ত্রী-পুত্রগণের সহিত ইংরাজদিগের নিকট গিয়া উপস্থিত হয়। ইংরাজ সেনাপতি উহাদিগকে লইয়া কি করিবেন, তাহার কিছুই স্থির করিতে না পারিয়া, উহার মধ্যস্থিত একশত লোককে সৈন্যের মধ্যে নিযুক্ত করিয়া লন। অবশিষ্ট প্রায় ৬০০ শত ব্যক্তিকে আলগোরা উপসাগরে প্রেরণ করেন; ও যে পর্য্যন্ত কেপ নগর হইতে কোনরূপ সংবাদ না আইসে, সেই পর্য্যন্ত তাহাদিগকে সেই স্থানেই রাখিবার ব্যবস্থা করা হয়।