পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/১৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


ত্রয়োদশ উপাখ্যান

 

বেতাল কহিল মহারাজ

চন্দ্রহৃদয় নগরে রণধীর নামে প্রবলপ্রভাপ নরপতি ছিলেন। রাজা রণধীরের প্রভাবে প্রজারা চির কাল নিরুপদ্রবে বাস করিত। কিয়ৎ দিন পরে নগরে গুরুতর চৌর্য্যক্রিয়ার আরম্ভ হইল। পৌরেরা চৌরের উপদ্রবে অত্যন্ত ব্যাকুল হইয়া সকলে মিলিয়া রাজসমীপে স্ব স্ব দুঃখ নিবেদন করিল। রাজা সবিশেষ সমস্ত শ্রবণগোচর করিয়া কহিলেন যাহা হইয়াছে তাহার আর উপায় নাই। অতঃপর যাহাতে না হইতে পায় তদ্বিষয়ে বিশেষরূপ যত্নবান্‌ থাকিলাম। এইরূপ আশ্বাস দিয়া নগরবাসীদিগকে বিদায় করিলেন এবং নূতন নূতন প্রহরী নিযুক্ত করিয়া তাহাদিগকে অত্যন্ত সতর্কতাপূর্ব্বক নগররক্ষার আদেশ দিয়া স্থানে স্থানে পাঠাইলেন কহিয়া দিলেন চোর পাইলে তাহার প্রাণদণ্ড করিবে। প্রহরীরা অত্যন্ত সাবধানে নগররক্ষা করিতে লাগিল তথাপি চৌর্য্যের কিঞ্চিন্মাত্র নিবৃত্তি হইল না বরং দিনে দিনে বৃদ্ধিই হইতে লাগিল।