পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/১৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১৪৯
১৪৯
বেতালপঞ্চবিংশতি

পুত্ত্রের নিকট প্রেরণ করুন। বহু দিবস হইল ব্রাহ্মণের উদ্দেশ নাই আর তাঁহার আসিবার সম্ভাবনা বোধ হয় না। যদিও কালান্তরে প্রত্যাগমন করেন ব্রাহ্মণজাতি অর্থলোভী বহুসংখ্যক অর্থ দিয়া অনায়াসে বিদায় করিতে পারিবেন অথবা কন্যান্তরসঙ্ঘটন করিয়া তাঁহার পুত্ত্রের বিবাহ দিলেও তাঁহাকে সন্তুষ্ট করিতে পারিবেন।

রাজা নিতান্ত নিরুপায় ভাবিয়া ব্রাহ্মণবধুর নিকটে গিয়া মন্ত্রিপুত্ত্রের প্রার্থনা জানাইলেন। কপটচারী মনস্বী নিবেদন করিলেন মহারাজ আপনি দেশাধিপতি বিশেষতঃ এক্ষণে আমি আপনকার আশ্রয়ে আছি। অতএব আপনকার আজ্ঞাপ্রতিপালন করা আমার উচিৎ কর্ম্ম। কিন্তু বিবাহিতনারীর পুরুষান্তরসেবা শাস্ত্রনিষিদ্ধ ও লোকাচারবিরুদ্ধ। আপনি দণ্ডধারী হইয়া কি রূপে ঈদৃশ বিসদৃশ আজ্ঞা করিতেছেন বুঝিতে পারিলাম না। মহারাজ আমি প্রাণান্তেও পরপুরুষের মুখাবলোকন করিব না। রাজা শুনিয়া বিষণ্ণ হতবুদ্ধি ও কিংকর্ত্তব্যবিমূঢ় হইয়া অন্তঃপুর হইতে বহির্গত হইলেন।

মনস্বী আর এখানে থাকায় ভদ্রস্থতা নাই অতঃপর পলায়ন করাই শ্রেয়ঃ এই স্থির করিয়া বধুবেশ পরিত্যাগপূর্ব্বক কৌশলক্রমে রাজবাটী হইতে পলায়ন করিলেন। রাজা ব্রাহ্মণবধূর অদর্শনবৃত্তান্ত অবগত হইয়া এক বারে বিষাদ-