পাতা:মানিক গ্রন্থাবলী (প্রথম খণ্ড).pdf/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


So মনে মনে মনোরমা কিন্তু মাথা নাড়ে। রাজকুমারের খুলী হওয়া যেন সে রকম নয়। সে শান্তই ছিল চিরদিন, আরও শান্ত হইয়াছে, শুধু চোখেমুখে ফুটিয়াছে জ্যোতি, কথা ও ব্যবহার হইয়াছে নিৰ্ভয় নিশ্চিন্ত সুখী মানুষের আনন্দময় সহজ আত্মপ্ৰকাশ। একটু তো উত্তেজনা থাকা উচিত ছিল আনন্দে, কালীকে চায় কি চায় না। এ সমস্যার মীমাংসা যদি তার হইয়া গিয়া থাকে, সুরু। যদি হইয়া থাকে কালীকে পাওয়ার দিন গোণা ? কালীকে সে জিজ্ঞাসা করে, হঁয়ারে কালী, কি হয়েছে রে ? জিজ্ঞাসা করে অনেক বুদ্ধি খাটানো খানিকটা ভূমিকার পর। সে আর কালী ছাড়া রান্নাঘরে কেউ নাই, তবু হাত ধুইতে ধুইতে কালীকে সে শোয়ার ঘরে যাইতে বলে, -একটা কথা আছে। একটু দেরী করিয়া নিজে ঘরে যায়, দরজা সযত্বে ভেজাইয়া দেয়। তারপর সামনে দাড়াইয়া হাসিমুখে সুখবর প্রত্যাশা করার মত ব্যগ্ৰভাবে প্রশ্নটা করে। যদি কিছু ঘটিয়া থাকে কালীর মত বোকা মেয়েরও বুঝিতে বাকী থাকিবে না কোন বিষয়ে তার জানিবার আগ্ৰহ। মুখে কিছু না বলুক, কালীর মুখ দেখিয়াঙ্গ সে সব বুঝিতে পরিবে । কিন্তু হায়, কালীর মুখে বিস্ময় ছাড়া আর কোন ভাব cकiए ना। কিসের দিদি ? হতাশ ক্ৰোধে মনোরমা বলে, কচি খুকী তুমি, কিছু জানি না। রাজু তোকে কিছু বলেনি ? কিছু করে নি ? ब्ा Cख्5ा ? না তো ? বড় গর্বের কথা তোর, না ? যা চেহারা, ষা স্বভাব, কে তোকে পছন্দ করবে । রাজকুমার আজকাল সকলের আয়ত্তের বাহিরে চলিয়া গিয়াছে। চেষ্টা না করিয়া কেউ আজকাল রাজকুমারকে কাছে পায় না । কাছে মানে পাশে বা সামনে নয় । সেভাবে কারো কাছ হইতে রাজকুমার নিজেকে দূরে সরাইয়া নেয় নাই। দেখা সাক্ষাৎ সকলের সঙ্গে যেমন চলিতেছিল প্ৰায় সেই রকমই বজায় আছে। যাদের সঙ্গে শুধু বাহিরের পরিচয় তারা বরং এমন কথাও ভাবে যে আরেকবারের আলাপে মানুষটার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতাই বুঝি बॉनिक बांख्रि cशंत्र ! ভূমিকা পার হইয়া জীবনের আনুষঙ্গিক দৃশ্যপট জানাজানিতে অন্ততঃ পৌঁছিয়াছে, যারা উচ্চারণ করার আগেই তার দু’চারটি মনের কথা এতকাল টের পাইয়া আসিয়াছে, চেষ্টা না করিলে তারাও আর মনের তার নাগাল পায় না, ব্যক্তিগত খুঁটিনাটি তুচ্ছ একটি কথারও পুনরাবৃত্তি যেন হয় না। কারও সদে তার দুচার ঘণ্টার আলাপে। তিন দিন তার সালে মালতীয় দেখা হইয়াছে, দশ জনের মধ্যে এবং নির্জনে । তিনদিন নিজের মধ্যে নিজেকে লিয়া ना श् । ब्रांख्रिकूरांद्र কিন্তু যাদের সঙ্গে তার পরিচয় । মািসওল মানুষটাকে মালতী দেখিয়াছে, কিন্তু তার উপস্থিতি অনুভব করিতে পারে নাই। প্ৰথমেই এই চিন্তা তার মনে আসিয়াছিল, একি শুঠামলের জন্য ? শু্যামল আর তার সম্বন্ধে কিছু ভাবিয়া কি রাজকুমার হঠাৎ এভাবে বদলাইয়া গিয়াছে ? রাজকুমারের পরিবর্তনের কত সম্ভবপর কারণের কথাই সে ভাবিতে পারিত, কত রাগ আর অভিমান জাগিতে পারিত উপেক্ষার মত রাজকুমারের নির্বিবকার খাপছাড়া ব্যবহার, তার বদলে শ্যামলকে কারণ হিসাবে মনে টানিয়া আনিয়া বুকটা তার ধড়াসা করিয়া উঠিল। সত্যই যেন শ্যামলের সঙ্গে তার কিছু হইয়াছে, শুামল যেন নিছক তার বন্ধু নয়। শুষ্ঠােমলের দিক হইতে ধরিলে হয়তো সে তা নয়। হয়তো কেন, মালতী ভালভাবেই জানে শু্যামলের মনকে বন্ধুর মন বলিয়া গণ্য করা শুধু ভুল নয়, নিষ্ঠুর অন্যায়। মাঝে মাঝে খামলের জন্য আজকাল জালা করিয়া চোখে তার জল আসে। আজ অপমান করিলেও কাল সে বই ফেরত নেওয়ার ছলে গম্ভীর মুখে বাড়ীতে আসে, বই হাতে পাওয়া মাত্র চোখ, তার ক্রুদ্ধ করুণ ছলছল আশ্চৰ্য্য চোখ, আড়াল করিতে অভিমানী শিশুর মত মুখ ফিরাইয়া মাথা উচু করিয়া গাঁটগট করিয়া চলিয়া যাওয়ার উপক্রম করে, কিন্তু ডাকিবামাত্র ফিরিয়া আসিয়া বলে, কি বলছি শীগগির বলে, আমার কাজ আছে। তবে এটা শুধু শু্যামলের দিক । সে তো কোনদিন তাকে প্রশ্ৰয় দেয় নাই,- কাছে আসিতে আর কথা বলিতে দেওয়া যদি প্রশ্ৰয় দেওয়া LDDB SDOK S S BO LLKK সম্পর্কেরই কোন জটিল দুৰ্বোধ্য প্ৰতিক্রিয়া, প্ৰথমেই এ কল্পনা কেন তাকে চমকাইয়া দেয় ? তারপর সারাদিন উতলা করিয়া রাখে, নিদ্ৰাহীন রাত্রি যাপন করায় ? ক'দিন মালতী যন্ত্রণা ভোগ করিয়াছে দারুণ কিন্তু সে যেন কেমন এক ধরণের যন্ত্রণা, উদভ্ৰান্ত উত্তেজনা আর আত্মহারা অবসাদের বেদনাহীন পীড়ন, গা পোড়ানো জ্বরে হাড় কঁপানো केष्ठद्म भठ । আজ শু্যামল আসিবে । কাল মালতী নিজে তাকে আসিতে বলিয়াছে। শু্যামলের সঙ্গে তার সিনেমায় যাওয়ার কথা আছে। বাহিরে যাওয়ার জন্য তৈরী হওয়ার কথা সে ভাবিতেছে, হঠাৎ তার মনে হইল, এভাবে চলিতে পারে না, এভাবে রাজকুমারকে দূরে সরিয়া যাইতে দেওয়া অন্যায়,- তারও অন্যায়, রাজকুমারেরও অন্যায়। চুপ করিয়া ঘরে বসিয়া শুধু উতলা হইলে তার চলিবে না। আজ রাজকুমারকে তার কাছে পাওয়া চাই। শুমাল যখন আসিল, রাজকুমারের সঙ্গে ফোনে কথা বলিয়া মালতী সৰে রিসিতারটা নামাইয়া রাখিয়াছে। উৎসাহে শুrামল অস্থির হইয়া পড়িয়াছিল। শীগগির তৈরী হয়ে নাও মালতী, দেী হয়ে গেছে। আমি যাৰ মন ।