পাতা:মুকুট - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

১৬

মুকুট

 ইন্দ্রকুমার। কখনো না। মন দিলে তুমি নিশ্চয়ই পারতে। দাদা, তুমি কেবল উদাসীন হয়ে সব জিনিস ঠেলে ফেলে দাও, এতে আমার ভারি কষ্ট হয়।

 ইশা খাঁ। তোমার দাদার বুদ্ধি তীরের মুখে কেন খেলে না, তা জান? বুদ্ধিটা তেমন সূক্ষ্ম নয়।

 ইন্দ্রকুমার। সেনাপতি সাহেব, তুমি অন্যায় বলছ।

 ইশা খাঁ। (রাজধরের প্রতি) কুমার, এবার তুমি লক্ষ্য ভেদ করো, মহারাজ দেখুন।

 রাজধর। আগে দাদার হোক।

 ইশা খাঁ। এখন উত্তর করবার সময় নয়, আমার আদেশ পালন করো।

রাজধরের তীর নিক্ষেপ

 ইশা খাঁ। যাক, তোমার তীরও তোমার দাদার তীরেরই অনুসরণ করেছে—লক্ষ্যের দিকে লক্ষ্য ও করে নি।

 যুবরাজ। ভাই, তোমার বাণ অনেকটা। নিকট দিয়েই গেছে, আর একটু হলেই লক্ষ্য বিদ্ধ করতে পারত।

 রাজধর। লক্ষ্য বিদ্ধ তো হয়েছে দূর থেকে তোমরা স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছ না। ঐ যে বিদ্ধ হয়েছে।