পাতা:ম্যালেরিয়া - দয়ালকৃষ্ণ ঘোষ.pdf/১০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

ম্যালেরিয়া ।

৯৭

ভয়ানক ও যন্ত্রণাদায়ক হইয়াছিল যে অশু উদরবেধ দ্বারা উদর গহবরস্থ জল বহিষ্কৃত করিয়া না দিলে দুই এক দিবসের মধ্যেই মৃত্যু গ্রাসে পতিত হইত।

 শোথ অন্যান্য নানা কারণে উৎপন্ন হইতে পারে কিন্তু যাহা ম্যালেরিয়া সম্ভত তাহারই চিকিৎসা এস্থলে সংক্ষেপে বর্ণিত হইল।

 মুখরোগ (cancrum-oris) ইহা অতি ভয়ানক পীড়া এবং ইহার মৃত্যু সংখ্যাও অধিক। প্লীহা কিম্বা যকৃতের বিবৃদ্ধতা প্রযুক্ত দৈহিক অবসাদ সংঘটিত হইলে ম্যালেরিয়াক্রান্ত প্রদেশে ইহা সচরাচর দৃষ্টি গোচর হয়। ইহা গণ্ডের এক প্রকার কোথ (Gangrene)

 চিকিৎসা-ক্ষত স্থানে নাইট্রেট, অফ সিলভার এবং কখন কখন নাইট্রিক এসিড, প্রয়োগ, কারবলিক্ এসিড ধাবন ও কন্‌ডিস্ সলিউসন, দ্বারা কুল্লি বা পিচকারি করিলে উপকার দর্শিতে পারে। ডিকসন সিকোনার সহিত কারবলিক এসিড পিচকারি করিলে অধিকতর ফল প্রাপ্ত হওয়া যায়। ইহার সঙ্গে মধ্যে মধ্যে ক্লোরেট অফ পটাস ও জল মিশ্রিত ব্রাণ্ডির কুলিও মন্দ নয়। গণ্ড ফুটিয়া গেলে কাবলিক এসিড পিচকারি ও কাবলিক অইল প্রয়োগ এবং টিংচর অফ ষ্টীল সেবন করিলে অনেক উপকার হইবার সম্ভাবনা। বাহ্য প্রয়োগের সহিত অভ্যন্তরিক সেবনীয় ঔষধির বিশেষ প্রয়োজন। ব্রাণ্ডি, এমনিয়া, সিনকোনা, অল্প মাত্রায় কুইনাইন এবং