পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/১৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

উপবঙ্গেদ্বীপের প্রকৃতি । Ꮌ8Ꮔ তাহা সমতট আখ্যা পাইয়াছিল। ৩য় যুগে অর্থাৎ সেন রাজত্বকালে উহাই বগড়ী নামে চিহ্নিত হয়। পাঠান যুগে যশোহর ও খুলনা মামুদাবাদ, ফতেহাবাদ, ও খলিফতাবাদ এই তিনটি সরকারের কতকাংশ লইয় গঠিত ছিল। এই সময়ই দক্ষিণভাগে যশোর রাজ্য বিশেষভাবে চিহ্নিত হয়। মোগল আমলে যশোর প্রথমতঃ একটি সামন্ত রাজ্য ও পরে স্বাধীন বলিয়া কীৰ্ত্তিত হয়। ইংরাজশানকালে এই যশোর রাজ্য ও উত্তরবর্তী বিস্তৃত প্রদেশ লইয়া প্রথমতঃ যশোহর ডিভিসন ও পরে তাহা হইতে খণ্ডিত করিয়া যশোহর জেলা গঠিত হয়। আদি যুগে অতি অল্প স্থানেই লোকের বসতি স্থাপিত হয়। পরবর্তী যুগের প্রথমাৰ্দ্ধ পর্য্যন্ত এই অবস্থা চলে। খৃষ্টীয় প্রথম বা দ্বিতীয় শতাব্দীতে সুন্দরবন অঞ্চল দিয়া অবনমনাদি হইয়া দেশের ধ্বংস হইয়াছিল। পুনরায় ভূমি জাগিয়া সমতট হয় এবং উহাতে ৫৬ শত বৎসর ধরিয়া যথেষ্ট বসতি ও দৈশিক প্রতিপত্তি স্থাপিত হয়। উহার পরেই সুন্দরবন অঞ্চলের একবার নিমজ্জন হয়, তাহাতে অনেক বৌদ্ধকীৰ্ত্তি বিলুপ্ত হয়। পুনরায় সেন রাজত্বের প্রায় দুই শতাব্দী ধরিয়া আবার দেশের জাগ্রত অবস্থা হয়। এমন সময়ে পাঠান বিজয়ের পর হইতে নানাভাবে দেশের অবনতি সাধিত হইতে থাকে—তাহার সঙ্গে সঙ্গে সুন্দরবন অঞ্চলের পুনরায় একটা অবনমন হয়। ইহাকে আমরা তৃতীয় অবনমন বলিতে পারি। চতুর্দশ শতাব্দীর শেষভাগ হইতে পুনরায় দেশ উন্নত হইতে থাকে। এইবার উন্নত হইতে অনেক কাল লাগিয়াছিল। এই তৃতীয় অবনমনের পর খাজাহান আলি সুন্দরবন আবাদ করিয়াছিলেন। ক্রমে যখন দেশের একটা বিশিষ্ট উন্নত অবস্থা উপস্থিত হয়, তখনই বার ভূঞার যুগ এবং প্রতাপাদিত্য প্রভৃতি বীরবৃন্দের অভু্যদয় কাল। কিন্তু সেই অভু্যদয়ের অব্যবহিত পরেই পুনরায় যশোর রাজ্যের দক্ষিণাংশ বা সুন্দরবনভাগ অবনমিত ও জঙ্গলাকীর্ণ হইয় পড়ে। উত্তর ভাগে এই উপদ্রব যায় নাই। পুনরায় অতি অল্প দিন হইতে সুন্দরবনের সেই দুরবস্থার পরিবর্তন হইতেছে। বর্তমান সময়ে উচ্চ রাজকর্মচারিগণ স্বৰৱন বিভাগ পরিমাপ ও পরীক্ষা করিয়া অনুমান করিতেছেন যে সগরদ্বীপ হইত্তে চট্টগ্রাম পৰ্যন্ত বীপের তীরভূমি সোজাভাৰে ছিল। বরিশালের মধ্যভাগ হইত্ত্বে পূর্ব

  • पूर्तिपावाप्रब्र इलिशन थषम १७, ७४-७०१ । ।