পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৪৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

9ు3 যশোহর-খুলনার ইতিহাস । স্থানে রামচন্দ্ৰ খী নামক জনৈক প্রতাপান্বিত জমিদার বাস করিতেন। ইনি ব্রাহ্মণ ; ইহার পুৰ্ব্বনাম ছিল শাস্তিধর ; “রাম খা” তাহার উপাধি। আমি পূৰ্ব্বে বলিয়াছি যে ব্রাহ্মণের আশ্রয়ে সুলতান হুসেন সাহের বাল্যজীবন অতিবাহিত হইয়াছিল; তিনি এই শাস্তিধর বা রাম খাঁ হইতে পারেন। সম্ভবতঃ হুসেন সাহই তাহাকে রাম খা উপাধি দিয়াছিলেন। মুসলমান-নরপতির অনুগ্রহপূঃ রাম খাঁ সদাচারী ছিলেন না ; তিনি মুসলমানের ধৰ্ম্ম গ্রহণ না করিলেও মুসলমানের পক্ষপাতী ছিলেন এবং নিজে তান্ত্রিক শাক্ত বলিয়া নবপ্রচলিত বৈষ্ণব মতের বিরোধী ছিলেন। চৈতন্যচরিতামৃতকার ভক্ত কৃষ্ণদাস কবিরাজের মত সংযমী লেখক আর নাই ; তিনি কাহারও নিন্দ করিতেন না ; কিন্তু তিনিও রামচন্দ্র র্থ সম্বন্ধে সংযমের মাত্র রক্ষা করিতে পারেন নাই । ভক্ত হরিদাসকে সকল লোকে পূজা করে, সকল লোক র্তাহার নিকট যায়, তাহার গুণে মোহিত হয়, রামচন্দ্র র্থ তাহ সহ করিতে পারিলেন না । “সেই দেশাধ্যক্ষ নাম রামচন্দ্র খান বৈষ্ণবদ্বেষী সেই পাষণ্ড প্রধান । হরিদাসে লোকে পূজে সহিতে না পারে। তার অপমান করিতে নানা উপায় করে ॥” (চৈতন্যচরিতামৃত, ) কিন্তু সাধারণ চেষ্টায় হরিদাসের জপ ভঙ্গ হয় না । তিনি ব্রাহ্মণের বাড়ীতে ভিক্ষা করিয়া দিনান্তে একবার কিছু আহার গ্রহণ করেন ; আর দিবারাত্রির অধিকাংশ সময় জপকার্য্যে নিযুক্ত থাকেন। সাধারণ লোকের সহিত র্তাহার সম্বন্ধও বিশেষ কিছু ছিল না। যে জগৎ ছাড়িয়৷ উৰ্দ্ধগামী হয়, জগৎ তাহার কি করিতে পারে ? নিন্দ, বিদ্রুপ বা অত্যাচারে হরিদাসের কিছুই হইল না। তখন রামচন্দ্র খাঁ এক ভীষণ পরীক্ষা করিতে অগ্রসর হইলেন। হঠাৎ অর্থ-সামর্থ্য বৃদ্ধিতে সাধারণ লোকের বাহা হয়, রামচন্দ্রের তাহ হইয়াছিল। তিনি বেণ্ডাসক্ত হীনচরিত্র ছিলেন । র্তাহার একটি বেঙ্গার নাম হীরা। দুৰ্বত্ত জমিদারের বিপুল অর্থ আকর্ষণ করিয়া হীরা লক্ষমুদ্র সঞ্চয় করিয়াছিল ; তাই লোকে বলে তার জন্ত তাহার নাম হইয়াছিল লক্ষহীরা। হরিদাসের সর্বনাশ সাধনজন্ত রামচন্দ্র এই লক্ষহীরাকে নিযুক্ত করেন। হীরা পরমামুন্দরী এবং তীক্ষবুদ্ধিশালিনী ছিল। সে তিন দিনে হরিদাসের মতি হরণ 韃