পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/১৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৮ চপল । মুরলা । রবীন্দ্র-রচনাবলী অাদরে ভাসিয়া ললিতার চোখে বাহিরে সলিলধার— সোহাগে সরমে প্রণয়ে গলিয়৷ জাখি দুটি তার পড়িল ঢলিয়া, হাসি ও নয়নসলিলে মিলিয়া কি শোভা ধরিল মুখানি তার ! আমি, সখি, আর নারিন্থ থাকিতে— করিলাম হাসি হাসি ! ললিতা অমনি চমকি উঠিল, মুখেতে একটি কথা না ফুটিল, আকুল ব্যাকুল হইয়া সরমে লুকাতে ঠাই না পায় । ছুটিয়ে পলায়ে এলেম অমনি, হেসে হেসে আর বাচি নে সজনি, সে দিন হইতে আমারে হেরিলে ললিত সরমে মরিয়া যায় ! আহা, কেন বাধা দিতে গেলি তাহাদের কাছে ? বাধা না পাইলে, সখি, স্বখেতে কি মুখ আছে ? স্থৰ্য্যমুখী ফুল, সখি, আমি ভালবাসি বড়— ছু চারিটি তুলে এনে আজিকে করিস জড় । মনে বড় সাধ তার দেখে রবিমুখ-পানে, রবি যেথা মাথা তার লোয়ে যায় সেইখানে ! তবু মনোআশ হায় মনেই মিশায়ে যায়, মুখানি তুলিতে নারে সরমেতে জড়সড় ! সে ফুলে সাজাবি দেহ লাজময়ী ললিতার, লজ্জাবতী পাতা দিয়ে ঢাকিবি শয়ন তার ; কমল জানিয়া তুলি লাজে-রাঙা পাপড়িগুলি গাথি গাধি নিরমিয়া দিবি ঘোমটার ধার !