পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/১৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


)ey ब्रवैौटा-ब्रध्नांवलौ নিরাশা বুকেতে বসি ফেলিতেছে বিষখাল। উর্দুতে শকতি নাই, যেদিকে ফিরিয়া চাই শৃঙ্গ— পৃষ্ঠ— মহাশূন্ত নয়নেতে পরকাশ । কে আছে, কে আছে, সখি, এ শ্রাস্ত মস্তক মম বুকেতে রাখিবে ঢাকি যতনে জননী-সম! কে আছে, অজস্র স্রোতে প্রণয়অমৃত ভরি অবসর এ হৃদয় তুলিবে সজীব করি! बन, बज्र नि बाच्न, भूब्रिा अनिष्झ शंख्नশুকায়ে শুকায়ে শেষে মাটিতে পড়িবে ঝরি । { স্বগত ] হী কবি, ও হৃদয়ের শূন্য পুরাইতে অভাগিনী মুরলা গো কি না পারে দিতে ! কি স্বৰী হোতেম, যদি মোর ভালবাসা পুরাতে পারিত তব হৃদয়পিপাসা ! শৈশবে ফুটে নি যবে আমার এ মন তরুণ-প্রভাত-সম, কবি গো, তখন প্রতিদিন ঢালি ঢালি দিয়েছ শিশির— প্রতিদিন যোগায়েছ শীতল সমীয় ! তোমারি চোখের পরে করুণ কিরণে এ হৃদি উঠেছে ফুটি তোমারি যতনে ! তোমারি চরণে, কবি, দেছি উপহার, যা কিছু সৌরভ এর তোমারি— তোমার। [ প্রকাণ্ডে ] তোল কবি, মাথা তোল, ভেবো না এমন— দুজনে সরসীতীরে করিগে ভ্রমণ । ওই চেয়ে দেখ, কবি, তটিনীর ধারে মধ্যাহকিরণ লোয়ে বনদেবী স্তন্ধ হোয়ে দিতেছে বিবাহ দিয়া আলোকে আঁধারে । সাধের সে গান তব শুনিবে এখন ? তবে গাই, মাথা তোল, শোন দিয়ে মন ।