পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৩১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কন্দ্রচণ্ড ミ>> ধীরে ধীরে নিশ্বাস ফেলিয়া ফুল বলে, “কিছু নাই নাই।’ ‘ফুলবালা, পরিমল দাও” বায়ু আসি কহিতেছে কাছে । মলিন বদন ফিরাইয়া ফুল বলে, ‘আর কিবা অাছে !’ মধ্যাহকিরণ চারি দিকে খর দৃষ্টে চেয়ে অনিমিখে, ফুলটির মৃদু প্রাণ হায় ধীরে ধীরে শুকাইয়া যায় । অমিয়া। ওই আসিছেন পিতা, লুকাও লুকাও, পায়ে পড়ি— লুকাও লুকাও এই বেলা, একটি অামার কথা রাখ চাদ কবি ! সময় নাইক আর— ওই আসিছেন, কি হবে ? কি হবে ভাই ? কোথা লুকাইবে ? [ রুদ্ৰচণ্ডের প্রবেশ ] পিতা, পিতা, ক্ষমা কর, ক্ষমা কর মোরে ; আপনি এসেছি আমি চাদ কবি -কাছে, চাদের কি দোষ তাহে বল পিতা, বল । এসেছিহ, কিছুতেই পারি नि থাকিতে— নিজে এসেছিন্থ আমি, চাদের কি দোষ ? রুস্ত্ৰচণ্ড । অভাগিনী ! চাঙ্গ কবি । রুদ্রচও, শোন মোর কথা । অমিয়া । থাম টাঙ্গ, কোন কথা বোলো না পিতারে, ६iभ्यः क्षीब ।। छैांझ कवि । রুজচও, শোন মোর কথা ! অমিয়া । পিতা, পিতা, এই পায়ে পড়িলাম আমি,