পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী আমার সকল খেলা, সব কাজে, এ ভূমি জড়িত আছে শাশ্বতের ষেন সে লিখন । হঠাৎ চমক ভাঙে নিশীথে যখন সপ্তর্ষির চিরন্তন দৃষ্টিতলে, ধ্যানে দেখি, কালের যাত্রীর দল চলে যুগে যুগান্তরে । এই ভূমিখণ্ড-পরে তারা এল, তারা গেল কত । তারাও আমারি মতো এ মাটি নিয়েছে ঘেরি— জেনেছিল, একান্ত এ তাহাদেরি । কেহ আর্য কেহ বা অনার্য তারা, কত জাতি নামহীন, ইতিহাসহর । কেহ হোমাগ্নিতে হেথা দিয়েছিল হবির অঞ্জলি, কেহ বা দিয়েছে নরবলি । এ মাটিতে একদিন যাহাদের স্বপ্তচোখে জাগরণ এনেছিল অরুণ-আলোকে বিলুপ্ত তাদের ভাষা। পরে পরে যারা বেঁধেছিল বাসা, স্বখে দুঃখে জীবনের রসধারা মাটির পাত্রের মতো প্রতি ক্ষণে ভরেছিল যারা এ ভূমিতে, এরে তারা পারিল না কোনো চিহ্ন দিতে । আসে যায় ঋতুর পর্যায়, আবর্তিত অন্তহীন রাত্রি আর দিন ; মেঘরৌদ্র এর পরে ছায়ার খেলেনা নিয়ে খেলা করে