পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Σ @b" রবীন্দ্র-রচনাবলী চন্দ্রকান্ত । তোমার স্মরণশক্তির যেরকম অবস্থা দেখছি, এক্জামিনের পক্ষে সুবিধে নয়। এইখানে বৈঠক হবে, চলো ওদের ধরে নিয়ে আসিগে । গদাই । আজ শরীরটা তেমন ভালো ঠেকছে না, আজ থাকৃ— চন্দ্রকান্ত । বিনোদের বিয়েটা তো বছরের মধ্যে সদাসর্বদা হবে না গদাই ! যা হবার আজই চুকে যাবে। অতএব আজ তোমাকে ছাড়ছি নে, চলো । शङ्गांशे । कालां । [ প্রস্থান ক্ষান্তমণি ও ইন্দুর প্রবেশ ইন্দু বর তো তোমাদের এখান থেকেই বেরোবেন ? তার তিন কুলে আর কেউ নেই নাকি ? ক্ষণস্তমণি। বাপ-মা নেই বটে, কিন্তু শুনেছি দেশে পিসি-মাসি সব আছে— তাদের খবরও দেয় নি। বলে যে, বিয়ে করছি, হাট বসাচ্ছি নে তো । আবার বলে কী, এ তো আর শুম্ভ-নিশুম্ভর যুদ্ধ না, কেবল দুটিমাত্র প্রাণীর বিয়ে, এত শোর শরাবৎ লোক-লস্করের দরকার কী ? ইন্দু। একবার আমাদের হাতে পড়ুক-না, দুটিমাত্র প্রাণীর বিয়ে যে কিরকম ধুদুমার ব্যাপার, তা তাকে একরকম মোটামুটি বুঝিয়ে দেব – আজ যে তুমি বাইরের ঘরে ? * ক্ষান্তমণি। এই ঘরে সব বরযাত্রী জুটবে । দেখ-ন ভাই, ঘরের অবস্থাখানা । তারা আসবার আগে একটুখানি গুছিয়ে নেবার চেষ্টায় আছি। ইন্দু। তোমার একলার কর্ম নয়, এসো ভাই, দুজনে এ জঞ্জাল সাফ করা যাক্ । এগুলো দরকারি নাকি ? ক্ষান্তমণি। কিচ্ছ না। যত রাজ্যির পুরোনো খবরের কাগজ জুটেছে। কাগজগুলো যেখানে পড়া হয়ে যায় সেইখানেই পড়ে থাকে। ইন্দু। এগুলো ? ক্ষান্তমণি। এগুলো মকদ্দমার কাগজ— হারাতে পারলে বাচেন বোধ হয়। কেন ষে হারায় না তাও তো বুঝতে পারি নে। কতকগুলো গদির নীচে গোজা, কতক আলমারির মাথায়, কতক ময়লা চাপ কানের পকেটে । যখন কোনোটার দরকার পড়ে বাড়ি মাথায় করে বেড়ান, আঁস্তাকুড় থেকে আর বাড়ির ছাত পর্যস্ত এমন জায়গা নেই যেখানে না খুজতে হয় । ইন্দু। এর সঙ্গে যে ইংরেজি নভেলও আছে– তারও আবার পাতা ছেড়া ! কতকগুলো চিঠি— এ কি দরকারি !