পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


f , ii 8 ጃኡ f i مج | রবীন্দ্র-রচনাবলী ఏవి তার অন্ত নাই গো যে আনন্দে গড়া আমার অঙ্গ । তার অণু-পরমাণু পেল কত আলোর সঙ্গ । ও তার অন্ত নাই গো নাই । তারে মোহন-মন্ত্র দিয়ে গেছে কত ফুলের গন্ধ । তারে দোলা দিয়ে জুলিয়ে গেছে কত ঢেউয়ের ছন্দ। । ও তার অস্ত নাই গো নাই। আছে কত স্বরের সোহাগ যে তার স্তরে স্তরে লগ্ন সে যে কত রঙের রসধারায় কতই হল মগ্ন । ও তার অন্ত নাই গো নাই । কত শুকতারা যে স্বপ্নে তাহার রেখে গেছে স্পর্শ। কত বসন্ত যে ঢেলেছে তার অকারণের হর্ষ। ও তার অস্ত নাই গো নাই । সে যে প্রাণ পেয়েছে পান করে যুগ-যুগাস্তরের স্তন্ত ভুবন কত তীৰ্থজলের ধারায় করেছে তায় ধন্ত । ও তার অন্ত নাই গো নাই । সে যে সঙ্গিনী মোর আমারে সে দিয়েছে বরমাল্য । আমি ধন্য, সে মোর অঙ্গনে যে কত প্রদীপ জ্বালল। ও তার অন্ত নাই গো নাই । শাস্তিনিকেতন ৫ বৈশাখ ১৩২১ У о о তুমি আমার আঙিনাতে ফুটিয়ে রাখ ফুল। আমার আনাগোনার পথখানি হয় সৌরভে আকুল । ওগো ওই তোমারি ফুল। ওরা আমার হৃদয়পানে মুখ তুলে ষে থাকে। ওরা তোমার মুখের ডাক নিয়ে যে আমারি নাম ডাকে। ওগো ওই তোমারি ফুল। .