পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় Q)● মাল-মসলায় তৈরি নড়নড়ে বাসায় আশ্রয় নিতে সে নারাজ। তাই সে দিলে দৌড়। তার পরে কী ঘটল তা কে বলবে ? কালক্রমে উপরকার কাটার দাগটা হয়তে মিলিয়ে গেল, কিন্তু মাঝে মাঝে নাড়া খেয়ে ভিতরকার ছেড়। স্বায়ুর ব্যথাটা কি আজও টনটনিয়ে ওঠে না। ব্যথা যারা পায় তাদেরই উপরে আমরা জজিয়তি করি, কিন্তু ব্যথা ঘটাবার দায়িক কি সব সময়ে তারাই নিজে ? বজ্রাঘাতে ম’ল মানুষটা, তুমি বললে কিনা পূর্বজন্মের পাপের ফল। ওটাতে কেবল দোষ দেবার অন্ধ ইচ্ছারই প্রমাণ হয়, দোষের প্রমাণ হয় না। তুমি লিখেছ তোমার বান্ধবী আমার গল্পটার সব কটি পাত্রের পরেই বিমুখ । সংখ্যা অতি অল্প, তিনটিমাত্র প্রাণী, তবু তার একজনও তার মনের মতো নয়। ত। নিয়ে দুঃখিত হবার কারণ নেই। কেননা, অভিব্যক্তিতত্ত্বের প্রাকৃতিক নির্বাচনপ্রণালী সাহিত্যে এবং সমাজে একই নয় । সমাজে যাদের অমর বন্ধুর কোঠায় গণ্য করি নে সাহিত্যে তারা সমাদর পেয়েছে, এ দৃষ্টান্ত ভূরি ভুরি অাছে। অাদর্শ মানবচরিত্রের মাপে সাহিত্যের শ্রেষ্ঠতা-বিচার বাংলাদেশের সমালোচক-শ্রেণী ছাড়া পৃথিবীর আর কোথাও দেখা যায় না। মনে আছে এমন তর্ক একদা প্রায়ই শোনা যেত যে, অাদর্শ সতী নারী হিসাবে ভ্রমর এবং স্থৰ্যমুখীর চরিত্রে আধরতি পরিমাণে শ্রেষ্ঠতার তারতম্য কোন কথা কোন ভঙ্গিটুকু নিয়ে । অল্প বয়স সত্ত্বেও মনে আক্ষেপ হত যে অরসিকেষু রসস্ত নিবেদনং ইত্যাদি। সাহিত্য যে শ্রেয়স্তত্বের নিখুত ছাচে ঢালাই করা পুতুল গড়বার কারখানা নয় এ কথাও কি বোঝাতে হবে । ম্যাকৃবেথ নাটকে দুটিমাত্র প্রধান পাত্র, ম্যাকৃবেথ ও লেডি ম্যাকূবেথ। বলা বাহুল্য, দুজনের কাউকেই হুকুমারমতি পাঠকদের চরিত্রগঠনযোগ্য দৃষ্টাস্তরূপে ব্যবহার করা চলবে না। অ্যাণ্টনি অ্যাগু, ক্লিয়োপ্যাট্র। শেকৃসপীয়রের প্রধান নাটকের মধ্যে অন্যতম । কিন্তু ক্লিয়োপ্যাট্র প্রাতঃস্মরণীয়া পঞ্চকন্যাদের মধ্যে স্থান পাবার অধিকারিণী হলেও তাকে সাধবীর আদর্শ বলা চলবে না। আর, অ্যাণ্টনি আপন চরিত্রের অনিন্দ্য আদর্শে আধুনিক উচ্চ দরের বাংলা নভেলের নায়কদের সমশ্রেণীভুক্ত নয়, এ কথা মানতেই হবে। তথাপি এও না মেনে চলবে না যে, শেক্সপীয়রের নাটকটি উচুদরের বাংলা নভেলের চেয়ে অন্তত কোনো অংশে হীন নয়। মহাভারতে ধৃতরাষ্ট্রকে তুচ্ছ করতে পারি নে, কিন্তু মহত্বে তার নূ্যনতা ছিল। কারই বা না ছিল ? স্বয়ম্বরসভার ব্যাপারে ভীষ্মই কি ক্ষমার ষোগ্য । এমন-কি, কবির প্রিয়পাত্র পাণ্ডবদের আচরণে কলঙ্ক খুজে বের করবার জন্তে †->>{\99