পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


१●8 ब्रदौटश-ब्रक्रमांबलौ আমার কাছে কোনো পক্ষ থেকে দূত এলেছিল আমার মন ভাঙাতে ; আমার মুক্তধারার বাধ ভাঙবে এমন শাসনরাক্যেরও জাভাস দ্বিয়ে গেল । নরসিং । এত বড়ো কথা ? : কঙ্কর। তুমি সদ্ধ করলে, বিভূতি ? : বিভূতি। প্ৰলাপবাক্যের প্রতিবাদ চলে না । 4 , كا কঙ্কর। কিন্তু বিভূতি, এত বেশি নিঃসংশয় হওয়া কি ভালো ? তুমিই তো বলেছিলে বাধের বন্ধন দুই এক জায়গায় জালগা আছে, তার সন্ধান জানলে অল্প একটুখানিতেই— বিভূতি । সন্ধান যে জানবে সে এও জানবে যে, সেই ছিদ্র খুলতে গেলে তার রক্ষণ নেই, বন্যায় তখনই ভাসিয়ে নিয়ে যাবে । নরসিং । পাহারা রাখলে ভালো করতে না ? বিভূতি। সে ছিক্রের কাছে যম স্বয়ং পাহারা দিচ্ছেন। বাধের জন্তে কিছুমাত্র আশঙ্কা নেই। আপাতত ওই নন্দিসংকটের পথটা আটকে দিতে পারলে আমার আর কোনো খেদ থাকে না । কঙ্কর । তোমার পক্ষে এ তে কঠিন নয়। বিভূতি। না, আমার যন্ত্র প্রস্তুত আছে। মুশকিল এই যে, ওই গিরিপথটা সংকীর্ণ, অনায়াসেই অল্প কয়েক জনেই বাধা দিতে পারে। নরসিং । বাধা কত দেবে ? মরতে মরতে গেঁথে তুলব। বিভূতি । মরবার লোক বিস্তর চাই। কঙ্কর। মারবার লোক থাকলে মরবার লোকের অভাব ঘটে না । নেপথ্যে । জাগো, ভৈরব, জাগো । ধনঞ্জয়ের প্রবেশ কঙ্কর। ওই দেখো, যাবার মুখে অযাত্রা । বিভূতি। বৈরাগী, তোমাদের মতো সাধুরা ভৈরবকে এ পর্যন্ত জাগাতে পারলে না, আর যাকে পাষও বল সেই অামি ভৈরবকে জাগাতে চলেছি। n ধনঞ্জয় । সে কথা মানি, জাগাবার ভার তোমাদের উপরেই। বিভূতি। এ কিন্তু তোমাদের ঘণ্টা নেড়ে আরতির দীপ জালিয়ে জাগানো নয়। ধনঞ্জয় । না, তোমরা শিকল দিয়ে তাকে বাধবে, তিনি শিকল ছেড়বার জন্তে জণগবেন ।