পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


$ 58 রবীন্দ্র-রচনাবলী দিনে দিনে শেষে সময় এসেছে আগিয়ে, তোমার ছবিতে আমারি মনের রঙ যে দিয়েছি লাগিয়ে । বিধাতা তোমাকে স্বষ্টি করতে এসে আনমনা হয়ে শেষে কেবল তোমার ছায়। রচে দিয়ে, ভুলে ফেলে গিয়েছেন— শুরু করেন নি কায়া । যদি শেষ করে দিতেন, হয়তে হত সে তিলোত্তমা, একেবারে নিরুপমা । যত রাজ্যের যত কবি তাকে ছন্দের ঘের দিয়ে আপন বুলিটি শিখিয়ে করত কাব্যের পোষা টিয়ে । আমার মনের স্বপ্নে তোমাকে যেমনি দিয়েছি দেহ অমনি তখন নাগাল পায় না সাহিত্যিকের কেহ । আমার দৃষ্টি তোমার স্বষ্টি o হয়ে গেল একাকার । মাঝখান থেকে বিশ্বপতির ঘুচে গেল অধিকার। তুমি যে কেমন আমিই কেবল জানি, কোনো সাধারণ বাণী লাগে না কোনোই কাজে । কেবল তোমার নাম ধ’রে মাঝে-মাঝে অসময়ে দিই ডাক, কোনো প্রয়োজন থাকৃ বা নাই-ব থাক্ । অমনি তখনি কাঠিতে-জড়ানো উলে হাত কেঁপে গিয়ে গুনতিতে ৰাও ভুলে ।