পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাঁশরি S&S রূপান্তর ঘটল কারও সন্দেহ ছিল না ওঁর গোত্রাত্তর ঘটবে বঁাশরির গুটিতেই। বাপ প্রভূশংকর খবর পেয়েই তাড়াতাড়ি আধুনিকের কবল থেকে নিয়ে গেলেন সরিয়ে। ১ । বঁাশরির চেয়ে বড়ো ওস্তাদ ঐ পুরন্দরসন্ন্যাসী, সব ক’টা বেড ডিঙিয়ে রাজার ছেলেকে টেনে নিয়ে এলেন এই ব্রাহ্মসমাজের আঙটি-বদলের সভায় । সব-চেয়ে কঠিন বেড়া স্বয়ং বঁশিরির। সুষমার বিধবা মা বিভাসিনীর প্রবেশ স্বল্পজলা বৈশাখী নদীর স্রোতঃপথে মাঝে মাঝে চর পড়ে যেরকম দৃশ্য হয় তেমনি চেহারা । শিথিলবিস্তারিত দেহ, কিছু মাংসবহুল, তবু চাপ পড়ে নি যৌবনের ধারাবশেষ । বিভাসিনী। বসে বসে কী ফিস্ ফিস্ করছিস তোরা। ১ । মাসি, লোকজন আসবার সময় হল, সুষমার দেখা নেই কেন । বিভাসিনী। কী জানি, হয়তো সাজগোজ চলছে। তোরা চল বাছা, চায়ের টেবিলের কাছে, অতিথিদের খাওয়াতে হবে । ১ । যাচ্ছি মাসি, ওখানে এখনও রোদদুর। বিভাসিনী । যাই, দেখি গে সুষমা কী করছে। তাকে এখানে তোরা কেউ দেখিস নি ? ২ । না, মাসি । বিভাসিনী । কে যে বললে ঐ পুকুরটার ধারে এসেছিল ? ১। না, এতক্ষণ আমরাই ওখানে বেড়াচ্ছিলুম। বিভাসিনীর প্রস্থান ২। চেয়ে দেখ, ভাই, তোদের স্বধাংশু কী খাটুনিই খাটছে। নিজের খরচে ফুল কিনে এনে টেবিল সাজিয়েছে নিজের হাতে। কাল এক কাও বাধিয়েছিল। নেপু বিশ্বাস মুখ বাকিয়ে বলেছিল, সুষমা টাকার লোভে এক বুনো রাজাকে বিয়ে করছে। ১। নেপু বিশ্বেস। ওর মুখ বাকবে না ? বুকের মধ্যে যে ধতুষ্টংকার । আজকাল স্বযমাকে নিয়ে ছেলেদের দলে বুক-জলুনির লঙ্কাকাও । ঐ স্থধাংশুর বুকখানা যেন মানোয়ারি জাহাজের বয়লারঘরের মতো হয়ে উঠেছে।