পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী ধরার বক্ষ চিরিয়া চলুক রক্তসিক্ত লুব্ধ নখর ” একদিন হবে ঢিলা । প্রতাপের ভোজে আপনারে যারা বলি করেছিল দান সে-দুর্বলের দলিত পিষ্ট প্রাণ নরমাংসাশী করিতেছে কাড়াকড়ি, ছিন্ন করিছে নাড়ী। তীক্ষ দশনে টানাছেড়া তারি দিকে দিকে যায় ব্যেপে রক্তপঙ্কে ধরার অঙ্ক লেপে । সেই বিনাশের প্রচণ্ড মহাবেগে একদিন শেষে বিপুলবীর্ঘ শাস্তি উঠিবে জেগে । মিছে করিব না ভয়, ক্ষোভ জেগেছিল তাহারে করিব জয় । জমা হয়েছিল আরামের লোভে দুর্বলতার রাশি, লাগুক তাহাতে লাগুক আগুন— ভস্মে ফেলুক গ্রাসি । ঐ দলে দলে ধাৰ্মিক ভীরু কারা চলে গির্জায় চাটুবাণী দিয়ে ভুলাইতে দেবতায় । দীনাত্মাদের বিশ্বাস, ওরা । ভীত প্রার্থনারবে শাক্তি আমিষে ভবে । কৃপণ পূজায় দিবে নাকে কড়িকড়া । খলিতে ঝুলিতে কষিয়া জাটিবে শত শত দড়িদড়া ।