পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় অক্লান্ত চলেছে ধেয়ে লক্ষ্যহারা দু্যলোকে দু্যলোকে । সঙ্গে সঙ্গে ছুটিয়াছে অপার তিমির-তেপান্তরে অসংখ্য নক্ষত্র হতে তেজোদীপ্ত অক্ষৌহিণী । এ কি সর্বত্যাগী অপব্যয় সর্বগ্রাসী ব্যর্থতার নিঃসীম অতলে । কিম্বা এ কি মহাকাল এক হাতে দান করে, ফিরে ফিরে নেয় অম্ভ হাতে । যুগে যুগে বারম্বার হিসাব মেলানো প্রকাণ্ড সঞ্চয়ে অপচয়ে ? কিন্তু কেন । তার পরে চেয়ে দেখি মানুষের চৈতন্ত্যজগতে । ভেসে চলে কত চিন্তা কত-না কল্পনা, কত পথে কত কীর্তি রূপে রসে— তীব্র বেগে অমরত্ব সন্ধানের উদ্দাম উচ্ছাসে উঠে জেগে ক্লাস্তিহীন চেষ্টা কত । জলে ওঠে কোথাও বা বাতি সংসারের যাত্রাপথে তপস্যার তেজে । কোথাও বা সভ্যতার চিতাবহিদাহ নিঃস্বতার ভস্মশেষ রেখে । লক্ষ লক্ষ ঝরিছে নিবার নিরুদ্দেশ প্রাণস্রোতে বহু ইচ্ছা বহু স্মৃতি লয়ে । নিত্য নিত্য এমনি কি অফুরান আত্মহত্যা মানবলোকের । যুগে যুগান্তরে মানুষের চিত্ত নিয়ে মহাকাল কেবলি কি করে দৃতিখেলা আপনারি বা হাতে দক্ষিণ হাতে । কিন্তু কেন । 8୯୬ଧଃ