পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কম্পিত প্রদীপশিখা-’পরে : তার চিহ্ন পদ্মপাতে গুপ্ত করি দিলে চিরতরে ; প্রান্তে তার ব্যর্থ বাশিরবে প্রতীক্ষিত প্রত্যাশার বেদনা যে উপেক্ষিত হবে । এ নহে তো ঔদাসীন্ত, নহে ক্লাস্তি, নহে বিস্মরণ, ক্রুদ্ধ এ বিতৃষ্ণ তব মাধুর্যের প্রচণ্ড মরণ, তোমার কটাক্ষ দেয় তারই হিংস্র সাক্ষ্য ঝলকে বলকে পলকে পলকে, t; বঙ্কিম নির্মম মৰ্মভেদী তরবারি-সম | তবে তাই হোক, ফুৎকারে নিবায়ে দাও অতীতের অভিম আলোক । চাহিব না ক্ষমা তব, করিব না দুর্বল বিনতি, পরুষ মরুর পথে হোক মোর অস্তহীন গতি, অবজ্ঞা করিয়া পিপাসারে, দলিয়া চরণতলে ক্রুর বালুকারে । মাঝে মাঝে কটুম্বাদ দুখে তীব্র রস দিতে ঢালি রজনীর অনিক্স কৌতুকে যবে তুমি ছিলে রহঃসৰী । প্রেমেরি সে দানখানি, সে যেন কেতকী

  • , রক্তরেখা একে গায়ে রক্তস্রোতে মধুগন্ধ দিয়েছে মিশায়ে ।

আজ তব নিঃশঙ্কা নীরস হাস্তবাণ আমার ব্যখার কেন্দ্র করিছে সন্ধান । সেই লক্ষ্য তব