পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পারস্তে 8ፃፃ এখানে অনেকটা পরিমাণে নিজেকে ও নিজকীয়কে ছাড়িয়ে একটা ব্যাপক ভূমিকার উপরে থাকি। ভূমিতল থেকে নিঃসংসত্ত উর্ধ্বে যেমন অনেকখানি দেশকে দেখা যায় তেমনি নিজের মুখদু:খের-জালে বদ্ধ, প্রয়োজনের-স্তুপে-আচ্ছন্ন সময় থেকে দূরে এলে অনেকখানি সময়কে একসঙ্গে দেখতে পাওয়া যায়। তখন যেন দিনকে দেখি নে, যুগকে দেখি ; দেখি ইতিহাসের পৃষ্ঠায়— খবরের কাগজের প্যারাগ্রাফে নয়। গবর্নরের ব্যবস্থায় এ দুইদিন রাত্রির আহারের পর ঘণ্টাখানেক ধরে এখানকার সংগীত শুনতে পাই । বেশ লাগে । টার বলে যে তারের যন্ত্র, অতি সূক্ষ্ম মৃদুধ্বনি থেকে প্রবল ঝংকার পর্যন্ত তার গতিবিধি । তাল দেবার যন্ত্রটাকে বলে ডম্বক, তার বোলের আওয়াজে আমাদের বায়া-তবলার চেয়ে বৈচিত্র্য আছে । * ইস্পাহানে আজ আমার শেষদিন, অপরাহে পুরসভার তরফ থেকে আমার অভ্যর্থনা । যে প্রাসাদে আমার আমন্ত্রণ সে শা আকবাসের আমলের, নাম চিহিল সতুন। সমুচ্চ পাথরের স্তম্ভশ্রেণীবিরাজিত এর অলিন্দ, পিছনে সভামণ্ডপ, তার পিছনে প্রশস্ত একটি ঘর— দেয়ালে বিচিত্র ছবি আঁকা। এক সময়ে কোনো-এক কন্নুৎসাহী শাসনকর্তা চুনকাম করে সমস্তটা ঢেকে দিয়েছিলেন। হাল আমলে ছবিগুলিকে আবার প্রকাশ করা হচ্ছে । এখানকার কাজ শেষ হল। দৈবাৎ এক-একটি শহর দেখতে পাওয়া যায় যার স্বরূপটি স্বম্পষ্ট, প্রতি মুহূর্তে যার সঙ্গে পরিচয় ঘটতে থাকে। ইস্পাহান সেইরকম শহর। এটি পারস্যদেশের একটি পীঠস্থান। এর মধ্যে বহুযুগের, শুধু শক্তি নয়, প্রেম সজীব হয়ে আছে। ইস্পাহান পারস্তের একটি অতি প্রাচীন শহর। একজন প্রাচীন ভ্রমণকারীর লিখিত বিবরণে পাওয়া যায় সেলজুক-রাজবংশীয় স্বলতান মহম্মদের মাত্রাসা ও সমাধির সম্মুখে তখন একটি প্রকাও দেবমূতি পড়ে ছিল। কোনো-একজন স্বলতান ভারতবর্ষ থেকে এটি এনেছিলেন তার ওজন ছিল প্রায় হাজার মণ । দশ শতাব্দীর শেষভাগে সম্রাট শা আব্বাস আর্দবিল থেকে তার রাজধানী এখানে সরিয়ে নিয়ে আসেন। সাফাবি-বংশীয় এই শ আব্বাস পৃথিবীর রাজাদের মধ্যে একজন স্মরণীয়-ব্যক্তি । . তিনি যখন সিংহাসনে উঠলেন তখন তার বয়স ষোলো, ষাট বছর বয়সে তার মৃত্যু। যুদ্ধবিপ্লবের মধ্য দিয়েই র্তার রাজত্বের আরম্ভ। সমস্ত পারস্তকে একীকরণ এর মহৎকীতি। ন্যায়বিচারে দাক্ষিণ্যে ঐশ্বর্যে র্তার খ্যাতি ছিল সর্বত্র পরিব্যাপ্ত। র্তার ঔদার্য ছিল অনেকটা দিল্লীশ্বর আকবরের মতো । তারা এক সময়ের লোকও ३२||७२