পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Y38 রবীন্দ্র-রচনাবলী সলিলতলে সোপন পরে উদাস বেশবাস । আধেক কায়া আধেক ছায়। জলের পরে রচিছে মায়া, দেহেরে যেন দেহের ছায়া করিছে পরিহাস । আম্ৰবন মুকুলে ভরা গন্ধ দেয় তীরে । গোপন শাখে বিরহী পাখি, আপন মনে উঠিছে ডাকি, বিবশ হয়ে বকুল ফুল খসিয়া পড়ে নীরে । দিবস ক্রমে মুদিয়া আসে মিলায়ে আসে আলো । নিবিড় ঘন বনের রেখা, আকাশ-শেষে যেতেছে দেখা, নিদ্রালস অঁাখির পরে ভুরুর মতো কালো । বুঝি বা তীরে উঠিয়াছে সে জলের কোল ছেড়ে । ত্বরিত পদে চলেছে গেছে, সিক্ত বাস লিপ্ত দেহে, যৌবন-লাবণ্য যেন লইতে চাহে কেড়ে । ,