পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8ፃb” 鲇 রবীন্দ্র-রচনাবলী উঠিল। ক্রমে অন্ধকারে আর কিছুই দেখা যায় না। একটা টিকটিকি মাৰে মাৰে ८कबल फ्रिकीक लक्ष कब्रिटङ जान्जेिल । भूख् दोब्र ब्रिा घट्द्रब्र प्रत्क्षा नैरङद्र बांडू প্রবেশ করিতে লাগিল। রঘুপতি সিন্মুকের উপরে বসিয়া কঁাপিতে লাগিলেন। এইরূপে এক মাস এই বিজন মন্দিরে কাটাইলেন, কিন্তু এমন করিয়া আর দিন কাটে না। পৌরোহিত্য ছাড়িতে হইল। রাজসভায় গেলেন। রাজ্যশাসনকার্ষে হস্তক্ষেপ করিলেন। দেখিলেন, অবিচার উৎপীড়ন ও বিশৃঙ্খলা ছত্রমাণিক্য নাম ধরিয়া রাজত্ব করিতেছে। তিনি রাজ্যে শৃঙ্খলা স্থাপনের চেষ্টা করিলেন। ছত্রমাণিক্যকে পরামর্শ দিতে গেলেন । , ছত্রমাণিক চটিয়া উঠিয়া বলিলেন, “ঠাকুর, রাজ্যশাসনকার্ধের তুমি কী জান । এ-সব বিষয় তুমি কিছু বোঝ না।” রঘুপতি রাজার প্রতাপ দেখিয়া অবাক হইয়া গেলেন । দেখিলেন, সে নক্ষত্র রায় আর নাই। রঘুপতির সহিত রাজার ক্রমাগত খিটিমিটি বাধিতে লাগিল। ছত্রমাণিক্য মনে করিলেন যে, রঘুপতি কেবলই ভাবিতেছে যে, রঘুপতিই তাহাকে রাজা করিয়া দিয়াছে। এই জন্য রঘুপতিকে দেখিলে তাহার অসহ বোধ হইত। অবশেষে এক দিন স্পষ্ট বলিলেন, “ঠাকুর, তুমি তোমার মন্দিরের কাজ করে গে । রাজসভায় তোমার কোনো প্রয়োজন নাই ।” রঘুপতি ছত্রমাণিক্যের প্রতি জলন্ত তীব্র দৃষ্টি নিক্ষেপ করিলেন। ছত্রমাণিক্য क्रेष९ चयउिड इहेश মুখ ফিরাইয়া চলিয়া গেলেন। উনচত্বারিংশ পরিচ্ছেদ নক্ষত্র রায় যেদিন নগর-প্রবেশ করেন, কেদারেশ্বর সেই দিনই তাহার সহিত সাক্ষাৎ করিতে যায়, কিন্তু বহু চেষ্টাতেও সে র্তাহার নজরে পড়িল না। সৈন্তেরা ও প্রহরীরা তাহাকে ঠেলিয়া ঠুলিয়, তাড়া দিয়া নাড়া দিয়া বিব্রত করিয়া তুলিল । অবশেষে সে প্রাণ লইয়া পলাইয়া যায়। গোবিন্দমাণিক্যের আমলে সে রাজভোগে गव्रभ शब्रिङ्ठ श्हेब्रा थांगांटम बान कब्रिउ-घूबब्राज मकब ब्रांरब्रव्र गश्ङि डांशंद्र বিশেষ প্রণয়ও ছিল। কিছু কাল প্রাসাচুত হইয় তাহার জীবনধারণ করা দায় হইয়া উঠিয়াছে ; যখন সে রাজার ছায়ায় ছিল, তখন সকলে তাহাকে সম্ভয়ে সম্মান করিত কিন্তু এখন তাহাকে কেহই আর গ্রাহ করে না। পূর্বে রাজসভায় কাহারও