পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশেষ ইটগুলো মাঝে-মাঝে খসে গিয়ে পড়ে অাছে রাশকরা । গায়ে গায়ে লেগেছে অনস্তমুল, কালমেঘ লতা, বিছুটির ঝাড় ; ভাটিগাছে হয়েছে জঙ্গল । পুরোনো বটের পাশে উঠেছে ভেরেগুণগাছ মস্তবড়ো হয়ে । বাইরেতে স্থপণখা-হিড়িম্বার চিহ্নগুলো আছে, মনে তারা কোনোখানে নেই । স্টেশনে গেলেম ফিরে একবার খুব হেসে নিয়ে । জীবনের ভিত্তিটার গায়ে পড়েছে বিস্তর কালো দাগ মুঢ় অতীতের মসীলেখা ; ভাঙা গাথুনিতে ভীরু কল্পনার যত জটিল কুটিল চিহ্নগুলো । মাঝে-মাঝে ষেদিন বিকেলবেলা বাদলের ছায়া নামে সারি সারি তালগাছে দিঘির পাড়িতে, দূরের আকাশে স্নিগ্ধ সুগম্ভীর মেঘের গর্জন ওঠে গুরুগুরু, ঝিঁঝি ডাকে বুনো খেজুরের ঝোপে, তখন দেশের দিকে চেয়ে বঁকাচোরা আলোহীন পথে ভেঙেপড়া দেউলের মুতি দেখি ; দীর্ণ ছাদে, তার জীর্ণ ভিতে