পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৫ শ্রাবণ ১৩৩৫ মহুয়া দেহ ঘেরি মম প্রাণের চমক তেমনি রাজে । সচকিত আলো নেচে ওঠে মোর সকল কাজে । মুক্তি ভোরের পাখি নবীন আঁখি দুটি পুরানো মোর স্বপনডোর ছিড়িল কুটিকুটি । রুদ্ধ মন গগনে গেল খুলি, বিজুলি হানি দৈববাণী বক্ষে উঠে দুলি । ঘাসের ছোওয়া তৃণশয়নছায়ে মাটির যেন মর্মকথা বুলায়ে দিল গায়ে ; আমের বোল, ঝাউয়ের দোল, ঢেউয়ের লুটোপুটি মিলি সকলে কী কোলাহলে বক্ষে এল জুটি । ভোরের পাখি নবীন আঁখি দুটি গুহাবিহারী ভাবনা যত নিমেষে নিল লুটি । কী ইঙ্গিতে আচম্বিতে ডাকিল লীলাভরে দুয়ারথোল। পুরানো খেলাঘরে, যেখানে ব’সে সবার কাছাকাছি অজানা ভাবে অবুঝ গান একদা গাহিয়াছি ।