পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মন্থয়া দৃপ্ত বলে লব টানি শঙ্কা হতে, লজ্জা হতে, দ্বিধাদ্বন্দ্ব হতে নির্দয় আলোতে । জাগিয়া উঠিবি অশ্রদ্ধারে, মুহূর্তে চিনিবি আপনারে ; ছিন্ন হবে ডোর, তোমার মুক্তিতে তবে মুক্তি হবে মোর। হে অচেনা, দিন যায়, সন্ধ্যা হয়, সময় রবে না ; মহা আকস্মিক বাধাবন্ধ ছিন্ন করি দিক্‌, তোমারে চেনার অগ্নি দীপ্তশিখা উঠক উজ্জলি, দিব তাহে জীবন অঞ্জলি । আষাঢ় ১৩৩৫ { বাঙ্গালোর } অপরাজিত ফিরাবে তুমি মুখ, ভেবেছ মনে আমারে দিবে দুখ ? আমি কি করি ভয় । জীবন দিয়ে তোমারে প্রিয়ে, করিব আমি ভূ বিল্প-ভাঙা যৌবনের ভাষা, অসীম তার আশা, বিপুল তার বল, তোমার আঁথি-বিজুলিঘাতে হবে না নিষ্ফল । বিমুখ মেঘ ফিরিয়া যায় বৈশাখের দিনে, অরণ্যেরে যেন সে নাহি চিনে, סאס\