পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিরকুমার-সভা । ১১৫ শৈলবালা ৷ আশীৰ্বাদ করুন আপনার উপদেশ যেন ব্যর্থ না হয়, নিজেকে যেন আপনার আদশের উপযুক্ত করতে পারি। চন্দ্রবাবু। আমার ভাগ্নী নির্মলাকে কুমারসভার সভ্যশ্রেণীতে ভুক্ত করতে আপনাদের কোনো আপত্তি নেই ? রসিক। আর-কোনো আপত্তি নেই, কেবল একটু ব্যাকরণের আপত্তি। কুমারসভায় কেউ যদি কুমারীবেশে আসেন তা হলে বোপদেবের অভিশাপ । শৈলবালা । বোপদেবের অভিশাপ এ কালে খাটে না । রসিক । আচ্ছা, অন্তত লোহারামকে তো বঁচিয়ে চলতে হবে ? আমি তো বোধ করি, স্ত্রীসভার যদি পুরুষসভ্যদের অজ্ঞাতসারে বেশ ও নাম পরিবর্তন করে আসেন তা হলে সহজে নিম্পত্তি হয় । শ্ৰীশ। তা হলে একটা কৌতুক এই হয় যে, কে স্ত্রী কে পুরুষ নিজেদের এই সন্দেহটা থেকে যায়— বিপিন। আমি বোধ হয় সন্দেহ থেকে নিষ্কৃতি পেতে পারি 1 রসিক। আমাকেও বোধ হয় আমার নাৎনী বলে কারও হঠাৎ আশঙ্কা না হতে পারে । শ্ৰীশ । কিন্তু অবলাকাস্তবাবু সম্বন্ধে একটা সন্দেহ থেকে যায়। শৈল অদূরবর্তী টিপাই হইতে মিষ্টাল্লের থালা আনিতে প্রস্থান করিল চন্দ্রবাবু। দেখুন রসিকবাবু, ভাষাতত্ত্বে দেখা যায়, ব্যবহার করতে করতে একট। শব্দের মূল অর্থ লোপ পেয়ে বিপরীত অর্থ ঘটে থাকে। স্ত্রীসভ্য গ্রহণ করলে চিরকুমারসভার অর্থের যদি পরিবর্তন ঘটে তাতে ক্ষতি কী। রসিক । কিছু না । আমি পরিবর্তনের বিরোধী নই– তা নামপরিবর্তন বা বেশপরিবর্তন যাইহোক-না কেন, যখন যা ঘটে আমি বিনা বিরোধে গ্রহণ করি বলেই আমার প্রাণটা নবীন আছে । মিষ্টান্ন শেষ হইল এবং স্ত্রীসভ্য লওয়া সম্বন্ধে কাহারও আপত্তি হইল না রসিক । আশা করি সভার কাজের কোনো ব্যাঘাত হয় নি । শ্ৰীশ। কিছু না— অন্তদিন কেবল মুখেরই কাজ চলত, আজ দক্ষিণ হস্তও যোগ দিয়েছে। বিপিন । তাতে আভ্যন্তরিক তৃপ্তিটা কিছু বেশি হয়েছে। আজ তা হলে এইখানেই সভা ভঙ্গ করা হোক, কারণ এর পরে আর কোনো আলোচনা চলবে না । এ দিকে দেরিও হয়ে গেছে। [সকলের প্রস্থান