পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>○o রবীন্দ্র-রচনাবলী হাসিয়া যবে তুলিতে ধন্থ প্রণয়ভীরু ষোড়শী চরণে ধরি করিত মিনতি । পঞ্চশর গোপনে লয়ে কৌতুহলে উলসি পরখছলে খেলিত যুবতী । হ্যামল তৃণশয়নতলে ছড়ায়ে মধুমাধুরী ঘুমাতে তুমি গভীর আলসে, ভাঙাতে ঘুম লাজুক বধূ করিত কত চাতুরী— নুপুর দুটি বাজাত লালসে । কাননপথে কলস লয়ে চলিত যবে নাগরী কুসুমশর মারিতে গোপনে, যমুনাকূলে মনের ভুলে ভাসায়ে দিয়ে গাগরি রহিত চাহি আকুল নয়নে । বাহিয়া তব কুসুমতরী সমুখে আসি হাসিতে, শরমে বাল উঠিত জাগিয়া-— শাসনতরে বাকীয়ে ভুরু নামিয়া জলরাশিতে মারিত জল হাসিয়া রাগিয়া । তেমনি আজো উদিছে বিধু, মাতিছে মধু্যামিনী, মাধবীলতা মুদিছে মুকুলে— বকুলতলে বাধিছে চুল একেল বসি কামিনী মলয়ানিল-শিথিল-দুকূলে । বিজন নদীপুলিনে আজো ডাকিছে চথা চর্থীরে, মাঝেতে বহে বিরহবাহিনী । গোপন-বাথা-কাতর বালা বিরলে ডাকি সর্থীরে কাদিয়া কহে করুণ কাহিনী । এসে গো আজি অঙ্গ ধরি সঙ্গে করি সখীরে বন্যমালা জড়ায়ে অলকে, এসে গোপনে মৃদুচরণে বাসরগুহদুয়ারে স্তিমিতশিখা প্রদীপ-আলোকে ।