পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ses রবীন্দ্র-রচনাবলী রাজা। সে কথা নিশ্চয় তোমার অগোচর নেই। আমি অখণ্ড রাজ্যের অধীশ্বর হতে চাই প্রভু ! . . . . সন্ন্যাসী। তা হলে গোড়া থেকে শুরু করো। তোমার থওরাজ্যটি ছেড়ে দাও । । *ị ; রাজা । পরিহাস নয় ঠাকুর । বিজয়াদিত্যের প্রতাপ আমার অসহ বোধ হয়, আমি তার সামস্ত হয়ে থাকতে পারব না । ** * , সন্ন্যাসী। রাজন, তবে সত্য কথা বলি, আমার পক্ষেও সে ব্যক্তি অসহ্য হয়ে উঠেছে। । * r রাজা । বল কী ঠাকুর ? সন্ন্যাসী । এক বর্ণও মিথ্যা বলছি নে। তাকে বশ করবার জন্তেই আমি মন্ত্রসাধনা করছি । রাজা। তাই তুমি সন্ন্যাসী হয়েছ ? সন্ন্যাসী । তাই বটে । রাজা । মন্ত্রে সিদ্ধিলাভ হবে ? সন্ন্যাসী । অসম্ভব নয় । sta f রাজা। তা হলে ঠাকুর, আমার কথা মনে রেখো। তুমি যা চাও আমি তোমাকে দেব । যদি সে বশ মানে তা হলে আমার কাছে যদি— । d সন্ন্যাসী । তা বেশ, সেই চক্রবর্তী-সম্রাটকে আমি তোমার সভায় ধরে আনব । রাজা। কিন্তু, বিলম্ব করতে ইচ্ছা করছে না। শরৎকাল এসেছে— সকালবেল উঠে বেতসিনীর জলের উপর যখন আশ্বিনের রৌদ্র পড়ে তখন আমার সৈন্যসামন্ত নিয়ে দিগ্‌বিজয়ে বেরিয়ে পড়তে ইচ্ছে করে। যদি আশীৰ্বাদ কর তা হলে— সন্ন্যাসী । কোনো প্রয়োজন নেই ; শরৎকালেই আমি তাকে তোমার কাছে সমর্পণ করব, এই তো উপযুক্ত কাল। তুমি তাকে নিয়ে কী করবে ? রাজা। আমার একটা কোনো কাজে লাগিয়ে দেব— তার অহংকার দূর করতে হবে । . . . . সন্ন্যাসী । এ তো খুব ভালো কথা। যদি তার অহংকার চুর্ণ করতে পার তা হলে ভারী খুশি হব। ' * : * * রাজা। ঠাকুর, চলে আমার রাজভবনে 1" সন্ন্যাসী। সেটি পারছি নে। আমার দলের লোকদের অপেক্ষায় আছি। তুমি যাও বাবা! আমার জন্তে কিছু ভেবে না। তোমার মনের বাসনা যে আমাকে ব্যক্ত