পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী ‘আজমীর গড় দিলা যবে মোরে পণ করিলাম মনে, প্রভুর দুর্গ শত্রুর করে ছাড়িব না এ জীবনে । প্রভুর আদেশে সে সত্য হায় ভাঙিতে হবে কি আজ ? এতেক ভাবিয়া ফেলে নিশ্বাস দুৰ্গেশ দুমরাজ । রাজপুত সেনা সরোষে শরমে ছাড়িল সমর-সাজ । নীরবে দাড়ায়ে রহিল তোরণে দুৰ্গেশ দুমরাজ গেরুয়া-বসনা সন্ধ্য নামিল পশ্চিম মাঠ-পারে ; মারাঠি সৈন্য ধুলা উড়াইয়া থামিল দুর্গদ্বারে । ‘দুয়ারের কাছে কে ওই শয়ান, ওঠে ওঠে, খোলে দ্বার।’ নাহি শোনে কেহ— প্রাণহীন দেহ সাড়া নাহি দিল অঙ্গর । প্রভুর কর্মে বীরের ধর্মে বিরোধ মিটাতে আজ দুর্গদুয়ারে ত্যজিয়াছে প্রাণ দুৰ্গেশ দুমরাজ । অগ্রহায়ণ ১৩০৬