পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/১৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*?र्थब्र लांबैौ দাড়াইয়াছে, সে-দেশের ও এ-দেশের শ্রমিকগণের মধ্যে স্থনীতি ও দুর্নীতির তুলনামূলক আলোচনা করিলে কি দেখা যায় এবং সংসারে লাভ-ক্ষতির পরিমাণ তাঁহাতে কোথায় নির্দিষ্ট হইয়াছে ইত্যাদি সংগ্রহমালার কোথাও না খেই হারাইয়া যায় এই ভয়ে সে আপনাকে আপনি বার বার সতর্ক করিল। তাহার স্মরণশক্তি তীক্ষ ছিল, বস্তৃতার মাঝখানে হঠাৎ যে ভুলিয়া যাইবে না, অনেকগুলা এক্জামিন ভাল করিয়া পাশ করার ফলে এ ভরসা তাহার ছিল। স্বতরাং মুখ দিয়া তাহার এই সকল নিরতিশয় সারগর্ভ বাক্যধারা কখনো বা উচ্চসপ্তকে, কখনো বা গম্ভীর খাদে, কখনো বা হুঙ্কার শব্দে গর্জিয়া গৰ্জিয়া এক সময়ে যখন সমাপ্ত হইবে তখন বিপুল শ্রোতৃমণ্ডলীর করতালিধ্বনি হয়ত বা সহজে থামতেই চাহিবে না। স্বমিত্রার প্রসন্ন দৃষ্টি সে স্পষ্ট দেখিতে লাগিল। আর ভারতী ! এইটুকু সময়ে এতখানি জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা সে যে কি করিয়া আয়ত্ব করিল ইহারই আনন্দিত বিস্ময় মুখ তাহার সমুজ্জ্বল ও চোখের দৃষ্টি সজল হইয় একমাত্র তাঁহার মুখের পরে নিপতিত হইয়াছে, কল্পনায় প্রত্যক্ষবং দেখিতে পাইয়া অপুর্বর শিরার রক্ত সবেগে বহিতে লাগিল। তাহার দ্রুত পদক্ষেপের সমান তালে পা ফেলিয়া চলা তল ওয়ারকরের পক্ষে অঙ্গ যেন দুরূহ হইয়া পড়িল । তাহারা মাঠে পৌঁছিয়া দেখিল তথায় তিল-ধারণের স্থান নাই, লোক জমিয়াছে যে কত তাহার সংখ্যা হয় না। সেদিনকার বক্তা হিসাবে অপূৰ্ব্বকে যাহারা চিনিতে পারিল তাহারা পথ ছাড়িয়া দিল, যাহারা চিনিত না তাহীরা ৪ দেখা-দেখি সরিয়া দাড়াইল । বিপুল জনস্তার মাঝখানে মাচা বাধা । ডাক্তার আজিও ফিরেন নাই, তাই শুধু তিনি ছাড়া পথের দাবীর সকল সভ্যই উপনীত বন্ধুকে সঙ্গে করিয়া কোনমতে ভিড় ঠেলিয়া অপূর্ব তথায় আসিয়া উপস্থিত হইল। মাচার উপরে একখান বেঞ্চ তখন ও খালি ছিল, চোখের ইঙ্গিতে নির্দেশ করিয়া স্বমিত্রা সেইখানে র্তাহীদের অভ্যর্থনা করলেন । মাচার পুরোভাগে দাড়াইয়া পাঞ্জাবী একজন অত্যন্ত ভয়ঙ্কর বকৃত দতেছিল, বোধ করি সে জবাব-পাওয়া মিস্ত্রী কিংবা এমনি কিছু একটা হইবে, অপূৰ্ব্বদের অভ্যাগমে ক্ষণকাল মাত্র বাধা পাইয়া পুনশ্চ দ্বিগুণ তেজে চীৎকার করিতে লাগিল। ভাল বক্তার কাছে জনতা যুক্ততর্ক চাহে না, যাহা মন্দ তাহা কেন মন্দ এ খবরে তাহদের আবশ্বক হয় না, শুধু মন্দ যে কত অসংখ্য বিশেষণ যোগে ইহাই শুনিয়া তাহারা চারিতার্থ হইয়া যায়। পাঞ্জাবী মিস্ত্রীর প্রচও বলার মধ্যে বোধ কর এই গুণটাই পৰ্য্যাপ্ত পরিমাণে বিদ্যমান থাকায় শ্রোতার দল যে কিরূপ চঞ্চল হইয়। উঠিয়াছিল তাহদের মুখ দেখিয়াই তাহা বুঝা যাইতেছিল। অকস্মাৎ কি যেন একটা ভয়ানক বিঘ্ন ঘটিল। মাঠের কোন এক প্রাস্ত হইতে অগণিত চাপা-কণ্ঠে সত্ৰাস কলরব উঠিল এবং পরক্ষণেই দেখা গেল বহু লোক ›ፀ ግ