পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (সপ্তম সম্ভার).djvu/১৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ বীণাপাণি বিশ্বাস করিল না। কহিল, কেন পথ নেই ? তোমাকে আমি বেশিদিন জানিনে সত্য, কিন্তু যতটুকু জানি, তাতে সমস্ত পৃথিবীর সামনে দাড়িয়ে দিব্যি ক’রে বলতে পারি, তুমি এমন কাজ কখনো করতে পারে না দিদি, যার জন্তে কেউ তোমার কোনদিকের পথ বন্ধ করতে পারে। আচ্ছা, তোমার শ্বশুরবাড়ির ঠিকানা য’লে দাও, আমরা ত পরশু সকালের গাড়িতে বাড়ি যাচ্ছি, বাবাকে সঙ্গে নিয়ে আমি নিজে তোমাদের বাড়ি গিয়ে হাজির হব, দেখি বুড়ো-বুড়ী আমাকে কি জবাব দেন। তোমার যারা শ্বশুর-শাশুড়ী, তারা আমারও তাই—তাদের কাছে গিয়ে দাড়াতে আমার কোন লজা নেই । অচলা চকিত হইয়া কহিল, তোমরা পরশু দেশে যাবে, একথা ত শুনিনি ? এখানে কে কে থাকবেন ? বীণাপাণি কহিল, কেউ না, শুধু চাকর-দারোয়ান বাড়ি পাহার দেবে। আমার জ্যাঠ-শাশুড়ী অনেকদিন থেকেই শয্যাগত, তার প্রাণের আশা আর নেই—তিনি সকলকেই একবার দেখতে চেয়েছেন। অচলা জিজ্ঞাসা করিল, তোমার শ্বশুরবাড়িটি কোথায় ? বীণাপাণি বলিল, কলকাতার পটলডাঙ্গায়। পটলডাঙ্গ নাম শুনিয়া অচলার মুখ শুষ্ক হইয়া উঠিল। ক্ষশকাল চুপ করিয়া থাকিয়া আস্তে আস্তে কহিল, বীণা, তা হলে আমাদেরও এ-বাড়ি ছেড়ে কালই যেতে হয় । এখানে থাকা ত অার চলে না । বীণাপাণি হাসিয়া উঠিল। বলিল, তাই বুঝি তোমাদের বাড়ি ফেরবার জন্যে এত সাধা-সাধি কয়চি ? এতক্ষণে বুঝি আমার কথার তুমি এই অর্থ করলে। না দিদি, আমার ঘাট হয়েচে, তোমাকে কোথাও যেতে আর কখনো আমি বলব না ; যতদিন ইচ্ছে এই কুড়ে-ঘরে তোমরা বাস কর, আমাদের কারও আপত্তি নেই। কিন্তু এই সদয় নিমন্ত্রণের অচলা কোন উত্তরই দিতে পারিল না । মুহূৰ্ত্তকাল মেীন থাকিয়া বিবর্ণমুখে জিজ্ঞাসা করিল, তোমাদের যাওয়া কি সত্যই স্থির হয়ে গেছে ? বীণাপাণি কহিল, স্থির বই কি । আজ আমাদের গাড়ি পর্য্যন্ত রিজার্ড করা হয়েচে । বাবার ঘরে যদি একবার উকি মারো ত দেখতে পাবে বোধ হয়, পোনর আন জিনিসপত্রই বাধাছাদা ঠিকঠাক। দাসী আসিয়া দ্বার-প্রান্তে দাড়াইয়া কহিল, বৌমা, মা একবার তোমাকে রান্না घटूब जांकtछन । যাই, বলিয়া সে একটুখানি হাসিয়া সহসা আর একবার দুই বাহ দিয়া অচলার এীৰা ৰেটন করিয়া কানে কানে কহিল, এতদিন লোকের ভিড়ে অনেক মুস্থিলেই তোমাদের দিন কেটেচে। এবার খালি বাড়ি-কেউ কোথাও নেই--আপন

  • b*२