পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


लिंर्ष डङ्ग वां जिंकक** 6 وع হইয়া অন্যান্য শিষ্যগণ ঐক্ষপ কার্য অনুসরণ করিতে প্রস্তুত হইয়াছিল ; কিন্তু পরবর্তী গুরু, হয় রায়, তাহাদের এইরূপ আত্মোৎসর্গে বাধা প্রদান করিলেন।২৮ م হরগোবিন্দের সময়ে শিখদিগের সংখ্যা অনেক পরিমাণে বৃদ্ধি হইয়াছিল। অৰ্জুনের রাজস্ব-বিষয়ক নীতির ফলে এবং তৎপুত্রের অস্ত্ৰধারণ ব্যপদেশে, বৃহৎ সাম্রাজ্য মধ্যে শিখদিগের স্বতন্ত্র একটি রাজ্য গঠিত হইল। যখন গুরু তাহার সরল-বিশ্বাসী মুসলমান বন্ধুর সহিত কৌতুক করিতেন, কিংবা অভিমানের জন্য বন্ধুকে তিরস্কার করিতেন, তখন র্তাহার স্বভাবসিদ্ধ গুপ্ত শক্তি প্রকাশ পাইত। একদিন তাহার বন্ধু বলিয়াছিলেন,— ‘উত্তর দেশের এই রাজা, দিল্লীর বিষয় এবং তত্ৰত্য রাজার নাম ও র্তাহার বংশ-বিবরণ অবগত হইবার জন্য একজন দূত প্রেরণ করিয়াছেন ; আমি বড়ই আশ্চর্যাম্বিত হইতেছি যে তিনি ধামিক-প্রবর নরপতি-শ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরের নাম অবগত নহেন’ ॥২৯ কিন্তু হরগোবিন্দ তাহার বৈচিত্র্যময় জীবনে প্রকৃত কার্য বিস্তুত হন নাই। শিখগণের দৃঢ় বিশ্বাস,—নানকের আত্মা পরবর্তী স্থলাভিষিক্ত প্রত্যেক গুরুর আত্মা-মধ্যে প্রবেশ করিয়া র্তাহাকে অনুপ্রাণিত এবং নুতন শক্তি প্রদান করিয়া থাকেন।৩০ নিজ শিষ্যগণের এই বিশ্বাসের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য, হরগোবিন্দ সাধারণতঃ আপনাকে নানক নামেই অভিহিত করিতেন । হরগোবিন্দ দৰ্শন-বিজ্ঞান যতদূর জানিতেন, এবং যে পরিমাণ জ্ঞান ২৮। দেবীস্থানের বর্ণনা অনুসারে এইরূপ ব্যাখ্যাত হইয়াছে। ( Dabistan", ii, 280, 281 ) ‘দেবীন্থানের মূল অবলম্বন করিয়াই বলা হইয়াছে যে,-৩য় মহরম, ১••• হিজিরী অথবা ১৬৪৫ খৃষ্টাব্দের ১৯শে ফেব্রুয়ারিতে হরগোবিলের মৃত্যু হইয়াছে। ম্যালকমের সারসংগ্রহ (Malcolm sketch", P. 37) ७वर कब्रटेitब्रब्र ‘बभ१छ्रुखांख' ( Forster, Travels", i. 299)—উভয় গ্রন্থেই বর্ণিত আছে যে, ১৬৪৪ খৃষ্টাব্দে হরগোবিলের মৃত্যু হয়। এই বিবরণই প্রকৃত এবং সম্ভবপর। এইরূপ গণনার शास्त्र র্তাহারা স্পষ্টই মনে করিয়াছেন যে, ১৭০১ সম্বৎ, ১৬৪৪ খৃষ্টাব্দের সহিত সর্বাংশে তুল্য। কিন্তু কেবল যে ১৬৪৪ খৃষ্টাব্দের প্রথম নয় মাসের সহিত ১৭-১ সম্বতের শেষ ভাগের মিল,-এ বিষয় তাহারা ভাবেন নাই। বর্তমান ইতিহাসের আরও অনেকগুলি তারিখ গণনা সম্বন্ধেও এই ভ্রম দৃষ্ট হয়। হস্তলিখিত পুথি আলোচনা করিলে দেখা যায়, হরগোবিলের মৃত্যু-সম্বন্ধে ভিন্ন ভিন্ন তারিখ নির্দিষ্ট আছে - দেখা যায়, তাহার স্বত্যুকাল যখাক্রমে, ১৬৩৭, ১৬৩৮ এবং ১৬৩৯ খৃষ্টাব্দে নির্ণীত হইয়াছে। কিন্তু যেখানে যেরূপ বর্ণনাই থাকুক না কেন,—সকলেই একটি মাঝামাঝি সিদ্ধান্তে উপনীত হইয়াছেন। মোসান ফাৰী বলেন,—তিনি ১৬৪৩ খৃষ্টাব্দে হরগোবিন্দকে জীবিত দেখিয়াছিলেন ; ( Dabistan, ii, 281 ) কিন্তু ঐ সকল বিবরণে, উহার মৃত্যুকাল কিছু পূর্বে উল্লিখিত হইয়াছে। দেশবাসীদিগের গণনায়, হরগোবিলের জন্মকাল ১৬৪২ সম্বতের প্রথমভাগে নির্দিষ্ট হয় ; ১৫৯৫ খৃষ্টাব্দের মধ্যভাগের সহিত ইহা এক। s» i see the Dabistan” ii. 276, 277, ('cwstwin', frêto ovgor, Rao, Roo jäi দ্রষ্টব্য) মোসান ফাণী নিজেই এই প্রসঙ্গের মুসলমান বন্ধু। এই গল্পে জানা যায়, শিখগণ মুসলমান-বন্ধুকে সত্য সত্যই আড়ম্বর-ভিয় বলিয়া মনে করিত। যে সময়ের কথা বলা হইতেছে, তখন সাজেছান বাদসাহ ছিলেন। দেৰীস্থানের অনুদিত খণ্ডে বন্ধনী মধ্যস্থিত অংশে জাহাঙ্গীরের পরিবর্তে সালেহানের বিষয়ই বর্ণিত রহিয়াছে। ১৬২৮ খৃষ্টাব্দে জাহাঙ্গীরের মৃত্যু হয়। হরগোবিলের সহিত মোসান ফাণীর পরিচয় ७क़्त्र औषप्नब्र cनदछांcन त्रषवl s७s• धुंडेiप्लग्न नब्र ब्रदेब्रांहिण वणिब्रl cवांष इब्र । - ee Compare the Dabistan”, ii. 281. - Q