পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/২৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সপ্তম পরিচ্ছেদ মুলতান, কাশ্মীর এবং পেশোয়ার অধিকার হইতে, রণজিৎ সিংহের মৃত্যু >br&8ー>b^○○ [ ইংরাজ ও শিখদিগের সম্বঙ্ক পরিবর্তন ;-বিধিধ কার্য ; –শিখদিগের কার্যকলাপ পরিদর্শনকারী রাজনৈতিক প্রতিনিধি, কাপ্তেন ওয়েড;—জাম্বুর রাজগণ;–পেশোয়ারে সৈয়দ আমেদ সার বিদ্রোহীচরণ, —রণজিৎ সিংহের খ্যাতি –রপারে লর্ড উইলিয়ম বেটীকের সহিত সাক্ষাৎ ;–সিন্ধুদেশ অধিকারে রণজিৎ সিংহের মন্ত্রণা, এবং সিন্ধুনদে বাণিজ্যপোত পরিচালনায় ইংরাজদিগের ব্যবস্থা ;–১৮৩৩-৩৫ খৃষ্টাব্দে সা-স্বজার আক্রমণ এবং রণজিৎ সিংহের পেশোয়ার অধিকার –রাজা গোলাপ সিং কর্তৃক লুদাক অধিকার ;–শিকারপুরে রণজিৎ সিংহের স্বত্ব, এবং ইংরাজদিগের বাণিজ্য-নীতি বহিভূত সিন্ধুদেশ অধিকারে রণজিৎ সিংহের মন্ত্রণা ;- আফগানিস্থানের "বারুকজায়ীদিগের সস্থিত ইংরাজীিগের সম্বন্ধ —রণজিৎ সিংহের আগমনে দোস্ত মহম্মদের পলায়ন ;-আফগান কর্তৃক শিখদিগের পরাজয় ; —নাও নিহাল সিংহের বিবাহ –সার হেনরি ফেণ —ইংরাজ, দোস্ত মহম্মদ ও রুশ জাতি। সাস্বজার সিংহাসন-প্রাপ্তি - ইংরাজগণ কর্তৃক ক্ষমতা হ্রাসের বিষয়ে রণজিৎ সিংহের অনুভূতি –রণজিৎ সিংহের মৃত্যু ৷ ] রণজিৎ সিং পেশোয়ার অধিকার করিয়াছিলেন বটে, কিন্তু তৎপ্রদেশ সম্পূর্ণরূপে বশীভূত করিতে র্তাহাকে বহুকালব্যাপী যুদ্ধে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে ব্যপৃত থাকিতে হইয়াছিল। রণজিৎ সিং সমস্ত পঞ্জাবের অধিপতি হইয়াছিলেন ; কিন্তু ইংরাজগণ এতদিন যে পক্ষে দৃষ্টি সঞ্চালন করেন নাই। যে দিন নেপোলিয়নের সৈন্যের বিরুদ্ধে অস্ত্ৰধারণ করিবার জন্য, ইংরাজগণ রণজিৎ সিংহের সাহায্য প্রার্থনা করেন, সেই দিন হইতেই শিখ-জাতির সামাজিক অবস্থার ও তাহদের উদ্বেপ্তের পরিবর্তন সাধিত হয়। যমুনা নদী এবং বোম্বাই সহরের সমুদ্রোপকূল, তখন আর ইংরাজ-রাজ্যের নির্দিষ্ট সীমা বলিয়া বিবেচিত হইত না । ইংরাজগণ নর্মদা নদী অতিক্রম করিয়াছিলেন ; রাজপুতনার রাজ্যগুলি করারাজ্য-মধ্যে পরিগণিত হইয়াছিল। পরিশেষে সমগ্র দেশ যাহাঁতে ধনৈশ্বর্যশালী হয় – তত্ত্বদেখে, এবং দৃঢ়েপেযোগী বাণিজ্য শৃঙ্খলে দূরবর্তী প্রদেশ সমূহকে বন্ধন করিবার অভিপ্রায়ে, তাহারা জলপথে বাণিজ্য সৌকর্যার্থ বিবিধ উপায় বিধানে যত্বপর হইয়াছিলেন ; উদ্দেশু সাধনার্থ তাহারা বাধ্য হইয়া, শিখরাজ্যের উদ্দেশুে বাধা প্রদান করিতে চেষ্টা করিয়াছিলেন। সেই উদ্দেশ্বের বশবর্তী হইয়াই, তাহারা অদৃষ্টপূর্ব অথচ স্বনিশ্চিতরূপে রণজিৎ সিংহের রাজ্যগ্রাসের নিমিত্ত যত্বপর হইয়াছিলেন । অধিকন্তু নানক গোবিন্দ আপনাপন প্রতিভাবলে যে ধর্ম-সংস্কার ও সমাজ-স্বাধীনতা বিষয়ক নীতি প্রদান করিয়াছিলেন, কঠোর পার্থিব শাসনের বশবর্তী হইয়া নিষ্ঠুরতার সহিত র্তাহারা তাঁহাতে হস্তক্ষেপ করিতে আরম্ভ করিলেন । -